বিনোদন

ভূতেদের ক্ষতিপূরণ বাবদ ২০ লক্ষ টাকা জরিমানা রাজ্য সরকারের৷

‘ভবিষ্যতের ভূত’ সিনেমাটি প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আজ রায় শোনালো সুপ্রিম কোর্ট। অনীক দত্ত পরিচালিত এই ছবিটির মুক্তির দিন থেকেই রাজ্য সরকারের সঙ্গে টানাপোড়েন শুরু হয়ে যায় সিনেমাটির কলাকুশলী এবং পরিচালকের৷ এরপরই হয় কোর্ট কেস। তারপর আজ শুনানি হয়ে রায় ঘোষণা করে দিল্লির সুপ্রিম কোর্ট।

মুক্তির পর থেকেই রাজ্য জুড়ে সাড়া ফেলেছিল এই সিনেমাটি। সিনেমা হলগুলোতে চলছিল হাউসফুল শো। কিন্তু হঠাৎই কলকাতা এবং কলকাতা সংলগ্ন বেশ কিছু সিনেমা হল এবং মাল্টিপ্লেক্সে বন্ধ করে দেওয়া হয় এই ছবির প্রদর্শন। কিছু জায়গায় রাজ্য পুলিশ গিয়েও এর প্রদর্শন বন্ধ করে দেওয়ায় বাকী সিনেমা হল এবং মাল্টিপ্লেক্সগুলো থেকেও ভয়ে উঠিয়ে নেওয়া হয় এই ছবি। এরপরই ‘ভবিষ্যতের ভূত’ ছবির প্রযোজক সংস্থা এই প্রসঙ্গটিতে রাজনৈতিক অভিসন্ধির গন্ধ পেয়ে সুপ্রিম কোর্ট এবং কলকাতা হাই কোর্ট-এ দুটি পৃথক মামলা করে বসেন৷

সুপ্রিম কোর্টের মামলার প্রথম রায় বের হয় গত ১৫ ই মার্চ। সেখানে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি রায় দেন যে সমস্ত সিনেমা হলগুলোতেই দেখানো যাবে এই ছবিটি। কিন্তু এই রায়ের পরও বেশ কিছু মাল্টিপ্লেক্স এবং সিনেমা হলগুলি এই ছবির প্রদর্শন বন্ধ করে রাখে। আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন এই ছবিটির প্রযোজক সংস্থা৷ সেই শুনানিতেই আজ রাজ্য সরকার এবং রাজ্য সরকারি পুলিশের কঠোর ভাবে সমালোচনা করে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি। এবং যেহেতু ছবিটির আর্থিক ক্ষতির জন্য রাজ্য সরকার দায়ী, তাই এবারে রাজ্য সরকারকেই এই ছবির ক্ষতিপূরণ বাবদ ২০ লক্ষ টাকা ছবিটির প্রযোজক সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার রায় জানালেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি। বলা বাহুল্য ভূতেদের রুখতে গিয়ে এবারে রাজ্য সরকার নিজেরাই জড়িয়ে পরলেন জরিমানার দায়ে৷

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button