সব খবর সবার আগে।

গায়ের রঙ কালো তাই একরত্তি নিশাকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছিল ১১টি পরিবার! পরম মমতায় তাকেই বুকে তুলে নেন সানি লিওনি

বলিউডের অনেক তারকাই নিজেদের ছেলে-মেয়ে থাকা সত্ত্বেও শিশু দত্তক নিয়েছেন। অনেকে সারোগেসির মাধ্যমেও ছেলে মেয়ের জন্ম দিয়েছেন। তবে এখন যে শিশুর কথা বলা হচ্ছে তার সঙ্গে যা ঘটেছিল তা জানলে আপনার গা রাগে রি রি করে উঠবে।একটি শিশুকে ১১ বার দত্তক নেওয়া থেকে পিছিয়ে আসে লোকজন। কিন্তু কেন?

কারণ সেই শিশুর গায়ের রং ছিল কালো এবং সে খুবই রুগ্ন। ধরেই নেওয়া হয়েছিল সে বোধ হয় নতুন ঘর আর খুঁজে পাবেনা। কিন্তু শেষমেশ ১২ নম্বর দম্পতি এসে নিজের সন্তান হিসেবে তাকে গ্রহণ করে নেয়। সেই দম্পতি ছিলেন সানি লিওনি এবং ড্যানিয়েল ওয়েবার।

যে শিশুর কথা বলা হচ্ছে সে আর কেউ নয় সে হল, নিশা কৌর ওয়েবার। নতুন বাবা-মার থেকে এই নামটিই পেয়েছে সে। সাল ২০১৭, নিশাকে দত্তক নেন সানি লিওনি ও ড্যানিয়েল ওয়েবার। অনাথ আশ্রমের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, ১১টি পরিবার প্রত্যাখ্যান করেছিল নিশাকে দত্তক নিতে। কারণ তার গায়ের রংয়ের জন্য। দম্পতিরা শিশুদের জাত-পাত, গায়ের রং দেখেই দত্তক নিয়ে থাকেন। যে কারণে বাদ পড়ে যাচ্ছিল নিশা।

তবে বলি-অভিনেত্রী সানি লিওনির কাছে সেরা ছিল নিশাই। তাই অনাথ আশ্রমের সকল শিশুদের মধ্যে থেকে তাকে নিজের সন্তান হিসেবে বেছে নেন এই তারকা দম্পতি। তারপর আবার সারোগেসির মাধ্যমে দুই পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। এখন তিন সন্তানের মা সানি লিওনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় মাঝে মধ্যেই তাঁদের পারিবারিক মুহূর্তের ছবি ফুটে ওঠে।

এই বিষয়ে একটি সাক্ষাৎকারে সানি লিওনি জানান,নিশা যে তাঁর দত্তক কন্যা, সে কথা তাঁর কাছ থেকে কোন ভাবেই লুকিয়ে রাখতে চান না তাঁরা। তাঁকে সব জানিয়েই জীবনে এগোতে চান এই তারকা দম্পতি‌। সন্তান দত্তক নেওয়া বলিউডে নতুন কোনো ব্যাপার নয়। এর আগে মন্দিরা বেদী, সুস্মিতা সেন ও রবিনা টন্ডনের মত তারকারা সন্তান দত্তক নিয়েছেন। তারকাদের পরিচয়েই বেড়ে উঠছে সেই দত্তক নেওয়া শিশুরা। সেই তালিকায় নাম জুড়েছে নিশা কৌর ওয়েবারের।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...