বিনোদন

কঠিন লড়াইয়ের মুখোমুখি ঐন্দ্রিলা, সময়সীমা বেঁধে দিলেন চিকিৎসক, আশা হারাচ্ছেন তাঁরা

মিষ্টি মেয়ে ঐন্দ্রিলা। কিন্তু ভাগ্যের কী পরিহাস। এই বয়সে ক্যানসারে আক্রান্ত তিনি। প্রতিনিয়ত লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন সুস্থ হওয়ার আশায়। তবে চিকিৎসা সাথ না দিলে কিছুই সম্ভব নয়, এই কারণে আশা হারাচ্ছেন চিকিৎসক। তবে সুস্থ হয়ে ওঠার অদম্য ইচ্ছাশক্তির কাছে হয়ত ভগবানও হার মানে, প্রথম কেমো নিয়ে ফেলেছেন ঐন্দ্রিলা।

২০১৬ সালে একবার ক্যানসার আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। সেই সময় তাঁর শিরদাঁড়া আক্রান্ত হয়। সেরেও উঠেছিলেন। কিন্তু সরস্বতী পুজোর আগের দিন শুটিং সেটেই অসুস্থ কাঁধে যন্ত্রণা অনুভব করেন তিনি। ঐন্দ্রিলার দিদি চিকিৎসক। তাঁর পরামর্শে পেইন কিলার ওষুধও নেন তিনি, কিন্তু যন্ত্রণা ঠিক হয় না। এই কারণে চিকিৎসা করতে দিল্লির এইমসে যান ঐন্দ্রিলা। জানতে পারেন, ফের ক্যানসারে আক্রান্ত তিনি। এবার ফুসফুস।

আরও পড়ুন- ‘আই লাভ ইউ’ সকলের সামনেই বলে ফেললেন মধুমিতা, দিলেন চুমুও, তবে কাকে? নাম জানতে উৎসুক নেটিজেনরা 

ফের ক্যানসার ফিরে এসেছে শুনে বেশ ভেঙে পড়েন অভিনেত্রী। হাসপাতালের বেডে শুয়েই সেকথা সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলকে জানান তিনি। চিকিৎসা করাবেন না, জেদ ধরেছিলেন। কিন্তু তাঁকে বোঝাতে দিল্লি উড়ে যান সব্যসাচী। তখন থেকেই তাঁর ছায়াসঙ্গী তিনি। সকলের সমর্থন পেয়ে ফের জীবনযুদ্ধের লড়াইয়ে নেমেছেন ঐন্দ্রিলা। ৬ মাস পর অস্ত্রোপচার হবে তাঁর। এরপর ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন ঐন্দ্রিলা, এমনটাই আশা রাখছেন চিকিৎসক।

আরও পড়ুন- সময় পেয়েই ঘুরতে বেরিয়ে পড়লেন রচনা, গাছগাছালির মধ্যে নিজেকে মেলে ধরলেন নতুন রূপে

তাঁর লড়াই শুরু হয় ৮ই মার্চ নারী দিবসের দিন থেকেই। এদিনই কেমোর প্রথম ডোজ নেন অভিনেত্রী। কেমোর জন্য নিজের সাধের চুলও কেটে ফেলেন ঐন্দ্রিলা। তবে হার মানেন নি। কেমোর প্রথম ডোজ নেওয়ার পর শুটিং সেটেও ফিরে যান ঐন্দ্রিলা। সম্প্রতি, ‘জিয়ন কাঠি’ নামের একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button