সব খবর সবার আগে।

লড়াইয়ে জয়ী হলেন ঐন্দ্রিলা, ক্যানসারকে হারিয়ে সুস্থতার পথে অভিনেত্রী, নেট দুনিয়ায় শুভেচ্ছার ঝড়

গত ফেব্রুয়ারি মাসেই শুটিং ফ্লোরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। ‘জিয়নকাঠি’ ধারাবাহিকের শুটিং-য়ের সময়ই কাঁধে অসহ্য ব্যাথা অনুভব করেন তিনি। সোজা উড়ে যান দিল্লির এইমসে। বায়োপসি করানোর পর জানা যায়, মারণ রোগে ভুগছেন ঐন্দ্রিলা।

জানা যায়, তাঁর ফুসফুসে বাসা বেঁধেছে টিউমার এবং সেটি ক্যানসারের পর্যায়। এরপর থেকেই শুরু হয় ঐন্দ্রিলার লড়াই। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর নিজেই দেন অভিনেত্রী হাসপাতালের বেডে শুয়েই।

আরও পড়ুন- কুখ্যাত বলিউড! নায়কের সঙ্গে শুলে কাজ মিলবে, কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুললেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী

তাঁর এই লড়াইয়ে প্রতিনিয়ত তাঁর পাশে ছিলেন তাঁর প্রেমিক সব্যসাচী চৌধুরী। স্টার জলসার ধারাবাহিক ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’এর বামাক্ষ্যাপা নামেই খ্যাত তিনি। ঐন্দ্রিলার এই লড়াইয়ে তাঁকে সাহস জোগানো থেকে শুরু করে তাঁর খেয়াল রাখা, সবই করেছেন অভিনেতা।

এরপর শুরু হয় ঐন্দ্রিলার কেমোথেরাপি সেশন। এই কারণে সব চুল কাটতে হয় অভিনেত্রীকে। প্রেমিকার লড়াইয়ে সঙ্গী হতে চুল কাটেন সব্যসাচীও। দীর্ঘ লড়াই চলে ঐন্দ্রিলার।

এর আগে ঐন্দ্রিলার এই মারণ রোগের বিষয়ে সব্যসাচী সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, “13cms X 11cms X 9cms মাপের একটা মাংসপিন্ড পাঁজরের ভেতর নিয়ে ফেব্রুয়ারী অবধি চুটিয়ে অভিনয় করেছে ঐন্দ্রিলা, এমনকি ফাটিয়ে ঝগড়া ও স্কুটি চালিয়ে দাপিয়ে বেরিয়েছে। তাঁর পাশে থেকেও একটিবারের জন্যে বুঝতে পারিনি। গত চার মাস কেমোথেরাপি চলার পর তাঁর টিউমারটা প্রায় অর্ধেক আয়তনে নেমে এসেছে ঐন্দ্রিলার। ওষুধ এবং খাদ্যের নিয়মানুবর্তিতা আর ওর শৃঙ্খলাবোধ থেকেই তা সম্ভবপর হয়েছে। এই সপ্তাহে ওর সার্জারি হবে এবং ডাক্তারের কথায় তা যথেষ্ট ক্রিটিক্যাল। আজ অবধি আমি ওকে অবসাদে ভুগতে দেখিনি, দাঁতে দাঁত চিপে সব কষ্ট সহ্য করতে দেখেছি। যদি আগের ছবিগুলো দেখে থাকো, তাহলেই দেখবে সব ছবিতেই ওর হাসিটা অটুট থাকে”।

আরও পড়ুন- তেতো-মিষ্টি প্রেমের গল্পে দর্শকদের মন জিতছে ‘মিঠাই’! ফের সপ্তাহ সেরা এই ধারাবাহিক

তবে অনেক লড়াইয়ের পর অবশেষে ঐন্দ্রিলার অপারেশন সফল হয়েছে। গতকাল সব্যসাচী আবারও ঐন্দ্রিলার বিষয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের অনুরাগীদের জন্য কিছু পোস্ট করেন। সুখবর দিয়ে তিনি জানান, “ঐন্দ্রিলার সার্জারি যথেষ্ট জটিল ছিল ঠিকই কিন্তু তা নিখুঁত ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। আগামী বেশ কিছু ঘন্টা ওকে আইসিইউ-তে রাখা হবে যতক্ষণ না ও সম্পূর্ণভাবে বিপদমুক্ত এবং স্থিতিশীল হচ্ছে। প্রচুর মানুষ ওর কুশল জানতে চেয়েছেন, অনেকে নাম গোত্র নিয়ে পুজো দিয়েছেন ওর নামে, প্রত্যেককে ধন্যবাদ”।

 ঐন্দ্রিলার ক্যানসার মুক্ত হওয়ার খবরে স্বভাবতই খুশি তাঁর ভক্তমহল। সকলেই অনেক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাঁকে। তাঁর দ্রুত সুস্থ হওয়ার কামনাও করেছেন সকলে।

You might also like
Comments
Loading...