সব খবর সবার আগে।

সিঙ্গেল মায়ের কাহিনীতে আবেগপ্রবণ অমিতাভ বচ্চন, দিলেন ৫ লাখ টাকা

অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন সঞ্চালিত ‘কৌন বানেগা ক্রোড়পতি’ শোতে ১ লাখ ৩০হাজার টাকা জেতেন সিঙ্গেল মাদার স্বরূপা দেশপান্ডে। তার জীবনকাহিনী, জীবন যুদ্ধে তার দুঃখের কাহিনী শুনে নিজে থেকেই তাকে ৫ লাখ টাকা দিলেন অমিতাভ বচ্চন। তিনি যে অন্যান্য মহিলাদেরও অনুপ্রেরণা, এ কথাও উল্লেখ করেন বিগ বি।

নবী মুম্বই-এর বাসিন্দা স্বরূপা দেশপান্ডে। ‘কৌন বানেগা ক্রোড়পতি’ শো-তে হট সিটে বসে পরপর ৯টি প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি। এই ৯টি প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়েই নিজের সমস্ত লাইফ লাইন ব্যবহার করে ফেলেন স্বরূপা। এরপর ১০ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দিলে তিনি পেতে পারতেন ৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। কিন্তু এই প্রশ্নের ভুল উত্তর দেওয়ায় তাকে ফিরতে হয় ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা নিয়েই।

এই শো-তে বারবারই উঠে আসে বিভিন্ন মানুষের জীবন সংগ্রামের কাহিনী। এদের মধ্যে স্বরূপাও একজন। একজন সিঙ্গেল মাদার হয়ে তার জীবনে সে কি কি প্রতিকূলতার সম্মুখীন হয়েছে তা এই শোয়ের মাধ্যমে তুলে ধরেন তিনি। কীভাবে প্রতি মুহূর্তে সকলের সঙ্গে লড়াই করে নিজের সন্তানকে তিনি মানুষ করে তুলছেন, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। তার এই লড়াই কাহিনী শুনে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন স্বয়ং অমিতাভ বচ্চনও। তিনি বলেন, নিজের ও তার সন্তানের জীবন পরিচালনার জন্য স্বরূপা যা কিছু করছেন তাতে অন্যান্য মহিলার কাছে তিনি অনুপ্রেরণা। বিশেষ করে যেসমস্ত মহিলারা বিয়ের পর নিজেদের বোঝা বলে মনে করেন, বিভিন্ন অপমানের মুখোমুখি হন, সব অত্যাচার, অন্যায় মুখ বুজে মেনে নেন, তাদের কাছে স্বরূপা দৃষ্টান্তমূলক উদাহরণ। স্বরূপার লড়াইয়ে তার পাশে দাঁড়াতে বিগ বি নিজেই তাকে তার বড় মেয়ের জন্য ৫ লাখ টাকার স্কলারশিপ দেন।

এর আগে কলকাতার রূনা সাহা এই শো-তে গিয়ে ২৫ লাখ টাকা জেতেন। মুর্শিদাবাদের মেয়ে রূনা সাহা, তার শ্বশুরবাড়ি কৃষ্ণনগরে। ২০০০ সালে ‘কৌন বানেগা ক্রোড়পতি’ শুরু হওয়ার পর থেকেই এই শো-তে জেতার স্বপ্ন দেখেন তিনি। অবশেষে ২০ বছর পর তার এই স্বপ্ন পূরণ হয়। ৫০লাখ টাকাও জিততে পারতেন তিনি, কিন্তু সেই প্রশ্ন অবধি যাওয়ার কোনও ঝুঁকি নিতে চান নি রূনা।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...