সব খবর সবার আগে।

বরকে আদর না করলে হয় নাকি! ‘খড়কুটোয়’ গুনগুন-বাবিনের দুষ্টু-মিষ্টি প্রেমে মশগুল দর্শক

‘খড়কুটো’ ধারাবাহিকটি শুরু হওয়ার সময় থেকেই দর্শক টেনেছে। টিআরপির দিক দিয়েও বরাবরই বেশ প্রথমের দিকেই থাকে এই ধারাবাহিক। গত সপ্তাহের টিআরপির দৌড়ে প্রথম স্থান অধিকার করেছে ‘খড়কুটো’।

অন্যান্য ধারাবাহিকের মতো ভিলেন, আক্রোশ ছাড়া এই ধারাবাহিকে রয়েছে একটি সুন্দর একান্নবর্তী পরিবারের গল্প। যে পরিবারের মানুষগুলো অর্থনৈতিক দিক দিয়ে প্রচণ্ড আহামরি কিছু না হলেও তাদের আনন্দ, হাসি, সারাদিন একসঙ্গে মজা, এসব দর্শকের মনে ধরেছে। একই গতানুগতিক ছক ছেড়ে বেরিয়ে এই ধারাবাহিক অল্প দিনেই দর্শকের মন কেড়েছে।

গুনগুন-বাবিনের শর্তসাপেক্ষ বিয়ে হলেও তাদের মধ্যে প্রেমের সঞ্চার যে হচ্ছে, তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু একে অপরকে মনের কথা জানাবে কী তারা। কভি নেহি। তাহলে তো ইগোতে লাগবে। তবে সে যাই হোক আকারে, ইঙ্গিতে কিন্তু তারা একে অপরকে ঠিকই জানান দিচ্ছে যে তারা একে অপরের প্রেমে মজেছে। আর দর্শকও তাদের এই প্রেমপর্ব বেশ উপভোগ করছে।

সম্প্রতি, এই ধারাবাহিকে এসেছে বিষাদের সুর। পুটু পিসির বিয়ে ভেঙে গিয়েছে। এই কারণে পরিবারের সকলের মন খারাপ। এমনই সময় গুনগুন জানতে পেরেছে যে জেঠাই আর বড়মার আরও একটি মেয়ে রয়েছে যার সঙ্গে তাদের কোনও সম্পর্ক নেই। সেই কথাই আগ বাড়িয়ে জেঠাইকে জিজ্ঞেস করতেই জেঠাই রেগে আগুন। বেশ ধমকও দিল গুনগুনকে।

আরও পড়ুন- নাড্ডার উপস্থিতিতেই গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন টলিউডের বিখ্যাত অভিনেত্রী

এই কারণে অভিমানে ও বাড়ির পরিস্থিতি আবার ঠিক করতে গুনগুন ফেঁদে ফেলে একটা প্ল্যান। ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার নাটক করে সে। এদিকে গুনগুনের এই অবস্থা দেখে বাবিনের তো প্রাণ যায় যায় অবস্থা। গুনগুন কোনওরকম সাড়া শব্দ করছে না দেখে তাঁকে বুকে জড়িয়ে এক প্রকার কেঁদেই ফেলে বাবিন।

পরে অবশ্য গুনগুন জানায় যে সে নাটক করছিল। জেঠাইয়ের উপর রাগ করে ও বাড়ির পরিস্থিতি আবার ঠিক করার জন্য এটা তাঁর প্ল্যান ছিল। তবে এদিকে গুনগুনের জন্য বাবিনের এই অবস্থা দেখে তাঁকে আবার রাগাতে থাকে গুনগুন। তাদের এই মিষ্টি মুহূর্তের ছবি ক্যামেরাবন্দি করে রাখে পরিবারের লোকজন। গুনগুন তো আবার বলেই ফেলে যে “তুমি তো আমার বর। আর বরকে তো একটু আদর করতেই হয়”।আর এই শুনেই লজ্জায় সেখান থেকে চম্পট দেয় বাবিন। এরপর এটাই দেখার পালা যে গুনগুন ও বাবিন কবে নিজের মুখে তাদের ভালোবাসার কথা একে অপরকে প্রকাশ করে।

You might also like
Comments
Loading...