সব খবর সবার আগে।

‘ভারতে আমি ঠিকই যাব’ পোস্ট দিয়ে জানিয়ে দিলেন নোবেল ম্যান

ভারতে আসার উপর জারি হয়েছে নিষেধাজ্ঞা তবু ভারতে আসবেন বলে জেদ ধরেছেন নোবেল ম্যান‌! সম্প্রতি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যের কারণে বেশ কয়েকদিন ধরেই খবরের শীর্ষে নোবেল। এরপর তার একের পর এক পোস্টে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। এদেশের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে নেতিবাচক পোস্ট করেছেন বলে নোবেলের উপর বেজায় চটে যান ভারতীয়রা। তাকে নিয়ে তৈরি থাকে নানান ট্রোল ও মিমস। অবশেষে চাপে পড়ে নোবেল ক্ষমা চাইতে বাধ্য হন এবং কেন তিনি এমনটা করেছেন সেই কারণও বিশ্লেষণ করেন। যদিও সেই কারণ কতটা যুক্তিসঙ্গত তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সদ্যই ‘তামাশা’ নামক নিজের এক গানের প্রমোশনের তাগিদে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রসঙ্গ টেনে এনেছিলেন তিনি এমনটাই নোবেলের বক্তব্য।

ভারতে আমি ঠিকই যাব! বাংলাদেশ আমার জন্মধারিণী। কিন্তু যে মাটিতে আমার কৈশর কেটেছে, যে মাটি আমার মধ্যে সংগীতের জন্ম দিয়েছে, সে মাটিতে আমি যেন জন্মভূমিরই গন্ধ পাই। আমি আসবো, তোমাদের আমন্ত্রণেই। ততদিন ভালো থেকো।

Posted by Noble Man on Friday, May 29, 2020

ত্রিপুরাতে তার নামে দায়ের হয়েছিল এফ আই আর। তার ভারতে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ইতিমধ্যেই সওয়াল তুলেছেন ত্রিপুরার এক ব্যক্তি। নিজের অভিযোগে এদেশে নোবেলের ভিসা বাতিলের দাবিও করেছেন তিনি। আইনসম্মত যুক্তি থাকায় নোবেলের বিরুদ্ধেই ঝুঁকছে ত্রিপুরা সরকার। ভারতে এলেই গ্রেপ্তার করা হতে পারে নোবেলকে, এই ইস্যুতেই চলছে আইনি আলোচনা।

কিন্তু নোবেল এর নাম থাকবে আর বিতর্ক থাকবে না তাই হয়? এই প্রসঙ্গে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন গায়ক। তিনি লিখেছেন, “ভারতে আমি ঠিকই যাব! বাংলাদেশ আমার জন্মধারিণী। কিন্তু যে মাটিতে আমার কৈশর কেটেছে, যে মাটি আমার মধ্যে সংগীতের জন্ম দিয়েছে, সে মাটিতে আমি যেন জন্মভূমিরই গন্ধ পাই। আমি আসবো, তোমাদের আমন্ত্রণেই। ততদিন ভালো থেকো।” যদিও এই পোস্টে বিশেষ সন্তোষজনক প্রতিক্রিয়া দেননি ভারতীয়রা। তাকে যে ভারতে কোনোভাবেই স্বাগত জানানো হবে না, তা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন ভারতীয় নেটিজেনরা।

You might also like
Leave a Comment