বিনোদন

‘উত্তমকুমার ছাড়া আমি সবাইকে রিপ্লেস করতে পারি’, অভিনয়ে অভিষেক ঘটিয়ে মদনের উবাচ

কখনও তিনি নিজের ‘ওহ লাভলি’ গান নিয়ে দর্শককে মাতিয়েছেন তো কখনও আবার সিনেমার ডায়লগ দিয়ে মন কেড়েছেন মহিলা মহলের। তাঁর গলায় সকলে রবীন্দ্রসঙ্গীতও শুনেছেন। তিনি নেতা হওয়ার পাশাপাশি বিধায়ক, গায়ক ও নায়কও বটে। তাঁকে তো ‘কালারফুল’ আখ্যা দিয়েই দিয়েছেন তাঁর দলনেত্রী। তিনি সকলের প্রিয় পাত্র মদন মিত্র।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লাইভ করলে হু হু করে বাড়ে লাইকের সংখ্যা। বন্যা বয়ে যায় কমেন্টের। সেই মদন মিত্রই এবার অভিষেক ঘটালেন অভিনয়ে। একদিকে যখন করোনার জেরে গোটা শহর আতঙ্কে জর্জরিত, ঠিক সেই সময়েই ছবির ডাবিং সেরে ফেললেন মদন।

নিজের চেনা দুর্দান্ত মেজাজে সিনেমার সংলাপ আওড়ে চলেছেন। হাসছেনও যেন ফিল্মি কায়দাতেই। ভালো চরিত্র পেলে তিনি মাত করে দেবেন, এ নিয়ে দৃঢ় আত্মবিশ্বাস রয়েছে তাঁর। বেশ প্রত্যয়ী সুরেই বলেন, “উত্তমকুমার ছাড়া আমি সবাইকে রিপ্লেস করতে পারি”।

মদন মিত্রের বায়োপিক তৈরি করার সিদ্ধান্তও হয়ে গিয়েছে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে গঙ্গাবক্ষে নায়িকাদের সঙ্গে তাঁর দোল খেলা রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় তুলেছিল। মিউজিক ভিডিওতে সকলকে চমক দিয়েছিলেন তিনি। এবার তিনি অভিনয় জীবনেও পথচলা শুরু করলেন। গতকাল, বুধবার লেক গার্ডেন্সের এক স্টুডিওতে ডাবিং করেন কামারহাটির বিধায়ক।

‘হচপচ’ নামের একটি ছবিতে নিজের নাম ভূমিকাতেই দেখা মিলবে মদন মিত্রের। অতিথি শিল্পী হিসেবে কিছুক্ষণের অ্যাপিয়ারেন্স রয়েছে তাঁর। আর এতেই বেশ খোশ মেজাজে দেখা মিলল মদন মিত্রের। এমনিতেই তাঁর গলায় সুরের ফুলঝুরি ফোটে।

রূপোলী পর্দাতেও শেষমেশ চলেই এলেন মদন। এই ছবি মুক্তি পাবে আগামী মে মাসে। তবে এর আগেই নিজের পরিচিত হাবভাবেই দেখা গেল কামারহাটির বিধায়ককে। ডাবিং করতে গিয়ে সবকিছুর মাঝেই বলে উঠলেন ওহ লাভলি। এসব দেখে মদনদার ফ্যানেরাও যেন বলে উঠছে ‘ওহ লাভলি’।

Related Articles

Back to top button