সব খবর সবার আগে।

১৮ থেকে ৬৮ সকলেরই আকর্ষণের কেন্দ্রে থাকে মদনদা, জানালেন শমীক ভট্টাচার্য!’ তবে কী হাওয়া এবার তৃণমূলের দিকে ?’ প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে

রাজনৈতিক মহলের এই ব্যক্তিত্বকে নিয়ে সবথেকে বেশি চর্চা হয়ে থাকে। তবে চর্চার থেকেও বেশি খিল্লিটাই হয়ে থাকে তাঁকে ঘিরে। কিন্তু তাও তিনি নিজের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। আজকাল একটি কথা লোকের মুখে মুখে খুবই শোনা যায়। সেটি হল, ‘ওহ লাভলি’। বোঝা হয়ে গিয়েছে, কথা হচ্ছে মদন মিত্রের। যিনি ১৮ থেকে ৬৮ সকলের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে রয়েছেন। এমনকি তাঁকে এই ধরনের কথা বললেন শমীক ভট্টাচার্যও।
প্রসঙ্গত একটি সংবাদমাধ্যমের ‘রাজনীতির আড্ডা’য় উপস্থিত হয়েছিলেন মদন মিত্র। সঙ্গে ছিলেন আরও কিছু ব্যক্তিত্ব। যেখানে আড্ডা ও গানের মজলিস বসেছিল। এমন সময় মদন মিত্র প্রসঙ্গে এই উক্তি করলেন শমীক ভট্টাচার্য। পাশাপাশি এদিন সঞ্চালকের অনুরোধে গানের দু’কলি লাইন শোনালেন মদনদা। তবে যদিওবা নিজের গান নয়। তাঁকে গাইতে শোনা গিয়েছে ‘হয়তো তোমারই জন্য, হয়েছি প্রেমে যে বন্য!’গানটি। তবে কাকে উদ্দেশ্য করে তিনি গানটি গেয়েছেন! তা জানা নেই। কিন্তু তাঁর সঙ্গে এই গানে গলা মিলিয়েছেন শমীক ভট্টাচার্যও। একই মঞ্চে যেভাবে একসঙ্গে বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য ও মদন মিত্রকে গান গাইতে এবং অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে দেখা গিয়েছে, তাতে বিজেপি নেতার দলবদল নিয়ে প্রশ্ন উঠছে রাজনৈতিক মহলে।

সম্প্রতি মদনদাকে নিয়ে নেটপাড়ায় চর্চা ছিল তুঙ্গে। দুর্গা পুজোর আগে এসেছিল তাঁর একটি মিউজিক ভিডিও। যা নিয়ে বেজায় খিল্লি করেছেন নেটিজেনরা। এবার এদিন এক সংবাদমাধ্যমের রাজনীতির আড্ডায় নিজের নানা কথাবার্তা দিয়ে সকলের নজর কাড়লেন এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তবে যেভাবে বিরোধী দলের নেতার সঙ্গে তিনি গোটা পর্বটি উপভোগ করেছেন তাতে সকলেই সন্দেহ করছেন।
এটা ঠিক যে, তিনি ১৮ থেকে ৬৮ সকলেরই কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন। কিন্তু এইভাবে বিরোধী দলের ব্যাক্তির সঙ্গে অনুষ্ঠান উপভোগ করার নজির খুব কম লোকই করেছেন। তাই এবার প্রশ্ন উঠছে, বিজেপি নেতার দল বদল নিয়ে। এদিন এই পর্বে, গানটি একসঙ্গে সকলে মিলেই গেয়েছেন এবং সকলের প্রিয় মদনদাকে যথেষ্ট সুরেই গানটি গাইতে শোনা গিয়েছে। কিন্তু নেটিজেনদের একাংশের মনে প্রশ্ন থেকেই গিয়েছে। দেখার, ভবিষ্যতে কী হয়।
You might also like
Comments
Loading...