সব খবর সবার আগে।

‘আমার সঙ্গে ঝামেলা চলছিল সুশান্তের’, ৯ ঘণ্টা ম্যারাথন জেরার পর চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর

দীর্ঘ জেরার পর অবশেষে মুখ খুললেন সুশান্ত সিং রাজপুতের চর্চিত বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী। সুশান্তের অস্বাভাবিক মৃত্যু তদন্তে বৃহস্পতিবার বান্দ্রা থানায় গোপন জবানবন্দি দেন রিয়া। নয় ঘন্টা ধরে তাকে ম্যারাথন জেরা করা হয়। শেষে গিয়ে তিনি স্বীকার করতে বাধ্য হন যে সুশান্তের সঙ্গে তার ঝামেলা চলছিল। তিনি নিজে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চেয়েছিলেন। তাই কিছুদিন আগেই তিনি সুশান্তের ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে অন্য জায়গায় থাকতে শুরু করেন।

তবে রিয়া এটাও জানিয়েছেন যে তাদের মধ্যে ঝামেলা চললেও কথাবার্তা একেবারে বন্ধ হয়ে যায়নি। প্রতিদিন টেক্সট ও ভিডিও কল হত। সুশান্ত রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে নিয়ম করে রিয়াকে একবার ফোন করতেন। তাদের মধ্যে নানা বিষয় নিয়ে ঝামেলা হলেও কথা একবারের জন্য বন্ধ হয়নি। মৃত্যুর আগের রাতেও সুশান্ত ফোন করেছিলেন রিয়াকে। সুশান্তের ঘনিষ্ঠরাও জানিয়েছেন, প্রতিদিন নিয়ম করে সুশান্ত রিয়াকে একটা ফোন করতেন।

রিয়ার থেকে জানা গিয়েছে নভেম্বরে তাদের বিয়ের প্ল্যানিং চলছিল। সেইমতো বান্দ্রার কাছে একটা ফ্ল্যাট কিনে থাকবেন বলে ফ্ল্যাটও খোঁজা শুরু করেছিলেন দু’জনে।

সুশান্ত-এর অস্বাভাবিক মৃত্যু তদন্তে এখনো পর্যন্ত ১৩ জনের বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। সেই তালিকায় সুশান্ত-এর অভিনীত শেষ ছবি দিল বেচারার কাস্টিং ডিরেক্টর মুকেশ ছাবড়া থেকে শুরু করে তাঁর প্রিয় বন্ধু মহেশ শেঠি, সুশান্তের অফিসের লোকজন, রাঁধুনি, পরিচারিকা থেকে আবাসনের কেয়ারটেকার সকলেই রয়েছে।

হিন্দুজা হাসপাতালের বিশিষ্ট মনোরোগ বিশেষজ্ঞ কেরসি চাওলার চিকিৎসাধীন ছিলেন সুশান্ত। তাঁর বয়ানও রেকর্ড করেছে পুলিশ। এই মনোরোগ বিশেষজ্ঞ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানিয়েছেন পুলিশকে। তিনি জানিয়েছেন যে রিয়ার আচরণে অসন্তুষ্ট ছিলেন সুশান্ত। যে কোনও ব্যাপারেই রিয়া খুব বিরক্ত হত। রিয়ার সঙ্গে তাঁর সম্পর্কে শিলমোহর দিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় সুশান্ত পোস্টও করেছিলেন। কিন্তু জোর করে ঝামেলা-ঝাঁটির পর রিয়া সুশান্তকে দিয়ে ডিলিট করান সেই পোস্ট। কেন রিয়া তার সঙ্গে সুশান্তের সম্পর্ককে প্রকাশ্যে আনতে আপত্তি জানাচ্ছিলেন এইবার সেই প্রশ্নের উত্তরই খুঁজবে মুম্বাই পুলিশ।

You might also like
Leave a Comment