সব খবর সবার আগে।

’১৩ বছর বয়সে আমার শরীর ছুঁতে চেয়েছিল দাদা’ বাড়িতেই যৌন হেনস্থার শিকার বাঙালি অভিনেত্রী মুনমুন দত্ত

নারীসুরক্ষা এখন যেন এক ভয়ঙ্কর অবস্থায় এসে ঠেকেছে। প্রতিটা পদে পদে মেয়েদের নানান ধরণের হেনস্থার শিকার। রিপোর্ট বলছে, ভারতে প্রতি ৬ মিনিটে একটি মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়। তাছাড়া, নিত্যদিন ট্রামে, বাসে প্রায় বেশিরভাগ মেয়েকেই যৌন নিগ্রহের শিকার হতে হয়। বর্তমান যুগে এর দোসর ইন্টারনেট। শুধু বাড়ির বাইরেই নয়, বাড়ির ভেতরেও মেয়েরা অসুরক্ষিত।

কাজের জায়গাতেও যৌন হেনস্থার শিকার হন মেয়েরা। বলিউডে এই উদাহরণ প্রচুর দেখা গিয়েছে। নানান অভিনেত্রীরা মুখ খুলেছেন যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে, তারা এর শিকারও হয়েছেন, এও বলেন তারা। ২০১৮ সালে এই বিষয়ে প্রথম এই নিয়ে মুখ খুলেছিলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন তিনি। এরপর একে একে অনেক অভিনেত্রীই ‘মি টু’ লিখে নিজেদের যৌন হেনস্থার কথা জানান সোশ্যাল মিডিয়ায়।

আরও পড়ুন- মায়ের মুখে নিজের নাম শুনে কী করল ইউভান, ভাইরাল সেই মিষ্টি ভিডিও

সম্প্রতি, বাঙালি অভিনেত্রী মুনমুন দত্ত নিজের উপর হওয়া যৌন হেনস্থার কথা একটি চিঠিতে লিখে জানান। ‘তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’ ধারাবাহিকে অভিনয় করে ভূয়সী প্রশংসা অর্জন করেছেন তিনি। মুনমুন বলেন, তিনি বারবার যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছে। তাঁর শিক্ষক যাকে তিনি রাখিও পরিয়েছিলেন, সেই শিক্ষকই তাঁর অন্তর্বাসের স্ট্র্যাপ ধরে টানে, তাঁর স্তনে থাপ্পড় মারে। তাঁর পাশের বাড়ির এক কাকার কুদৃষ্টি ছিল মুনমুনের উপর। সেই কাকাও তাঁকে একাধিকবার স্পর্শ করেছেন। তাছাড়া, তাঁর দাদা পর্যন্ত তাঁর শরীর ছোঁয়ার চেষ্টা করেছিলেন বলে তিনি।

আরও পড়ুন- সবার আড়ালে তিন নম্বর বিয়ে সারলেন শ্যামার মেয়ে, নিজেই বিয়ের ছবি পোস্ট করলেন সৌমি

এই কারণে গোটা পুরুষ জাতির প্রতি ঘৃণা মনোভাব তৈরি হয়েছে তাঁর। ছোটবেলায় তিনি বুঝে উঠতে পারতেন না যে বাবা-মাকে কীভাবে একথা বলবেন। কিন্তু এখন আর কাউকে ভয় পান না তিনি। এই কারণে তাঁর উপর হওয়া অন্যায় নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী।

You might also like
Comments
Loading...