বিনোদন

অন্তঃসত্ত্বা, তাতে কী? কাজে খামতি নেই নুসরতের, বেবি বাম্পের সঙ্গে চোখে মুখে ফুটে উঠল ‘মাম্মি গ্লো’

আগামী সেপ্টেম্বরেই নুসরতের জীবনে আসতে চলেছে নতুন অতিথি। আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছেন মা নিজের সন্তানের। কিন্তু এই সময় কিন্তু একেবারেই বাড়িতে বসে নেই নুসরত। নিজের কাজ ঠিক চালিয়ে যাচ্ছেন অভিনেত্রী। করছেন শুটিংও।

সম্প্রতিই একটি অ্যাড শুট করেছেন নুসরত। তাঁর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন তাঁর টিমের সকলেই। ফ্যাশন স্টাইলিশ কিয়ারা সেনের ইনস্টা স্টোরিতে দেখা মিলল শুটিং-এর নানান মুহূর্তের। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলেও সেই ছবি যদিও শেয়ার করেছেন নুসরত। বেবি বাম্প সযত্নে ঢাকা কালো রঙের হুডিতে।

আরও পড়ুন- ‘পোলা রে পোলা তুই অপরাধী রে’, কাকে অপরাধের কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন শ্রীময়ী? কাঞ্চন নয় তো? 

বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই নানান বিতর্কে জর্জরিত নুসরত। নানান আক্রমণ, কটাক্ষ সহ্য করতে হয়েছে তাঁকে। কিন্তু তিনি দমে যাননি, হারও মানেন নি। কঠিন হাতে সবটা সামলেছেন।

তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্টে একের পর এক ইঙ্গিতবাহী কথা উঠে এসেছে। কখনও তিনি অনুপ্রেরণামূলক ভিডিও শেয়ার করেছেন, লিখেছেন, “মনের ভিতরে কারও প্রতি নেতিবাচক চিন্তা থেকে থাকলে সেগুলো মুক্ত করে দাও। কারণ এটা নয় যে তাঁরা এটার যোগ্য, কারণ হল তোমার শান্তি প্রয়োজন”। আবার কখনও ছবি পোস্ট করে ক্যাপশন দিয়েছেন,, “নিজেকে ভাল রাখার শক্তি তোমার কাছেই রয়েছে”।

নুসরতের মা হওয়ার খবর সামনে আসতেই নেট মাধ্যমে হইচই পড়ে যায়। জল্পনা শুরু হতে থাকে সন্তানের পিতৃপরিচয় নিয়ে। এরই মধ্যে নুসরতের স্বামী নিখিল জৈন বলেন যে তিনি ও নুসরত দীর্ঘদিন আলাদা থাকেন, এই সন্তান তাঁর নয়। এরপরই সব জল্পনা যায় অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের দিকে। কারণ, যশ ও নুসরত যে প্রেম করছেন, তা অভিনেত্রী নিজেই স্বীকার করেছেন।

আরও পড়ুন- ‘মোদী ভক্তি শেষ’? ইন্দিরা গান্ধী হওয়ার পথে কঙ্গনা রানওয়াত, সকলকে চমকে করলেন বিশেষ ঘোষণা

এরপরই একটি বিবৃতি জারি করে নুসরত বলেন যে তাঁর ও নিখিলের বিয়ে আইনি মতে বৈধ নয়, সুতরাং তাদের বিয়ে হয়নি। তিনি ও নিখিল সহবাস করেছেন মাত্র। এই নিয়ে তরজা শুরু হয় রাজনৈতিক মহলেও। বিজেপি দাবী তোলে, নুসরত যদি বিবাহিতা নাই হবে, তাহলে লোকসভার ওয়েবসাইটে তাঁর স্বামীর নাম ও বিয়ের তারিখ দেওয়া কেন? এমনকি, নুসরতের সাংসদ হিসেবে শপথ গ্রহণের ভিডিও যাতে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে ‘আমি নুসরত জাহান রুহি জৈন’, সেই ভিডিও শেয়ার করেও বিজেপির অমিত মালব্য প্রশ্ন তোলেন যে নুসরত তাহলে কেন সংসদে মিথ্যে বলেছিলেন। এই কারণে তাঁর বিরুদ্ধে পদেক্ষেপ নেওয়া হতে পারে বলেও জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button