বিনোদন

‘মা’দ’ক খাইয়ে কালাযাদু করে যৌ’না’চা’র করেছে, আমাকে দিয়ে দেহ ব্যবসা করাত’, শত্রুঘ্ন সিনহার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ অভিনেত্রী পূজা মিশ্রার

তৃণমূল সাংসদ তথা বলিউড অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহার বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন বিগ বস পঞ্চম সিজনের প্রতিযোগী পূজা মিশ্রা। তাঁর দাবী, শত্রুঘ্না সিনহা সে’ক্স স্ক্যাম ও কালাযাদুতে জড়িত। পূজা অভিযোগ করেন যে তাঁর কেরিয়ার শেষ করে দিয়েছেন শত্রুঘ্ন সিনহা। তাঁকে দিয়ে জোর করে দেহ ব্যবসা করিয়েছে অভিনেতা, এমনই অভিযোগ করেন পূজা।

পূজার এমন অভিযোগে বলিপাড়ায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। শুধু শত্রুঘ্ন সিনহাই নন, তাঁর গোটা পরিবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন পূজা মিশ্রা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে পূজা দাবী করে যে শত্রুঘ্ন সিনহা তাঁকে মা’দ’ক খাইয়ে বেহুঁশ করে তাঁকে দিয়ে দেহব্যবসা করিয়েছেন। এমনকি অভিনেতার স্ত্রীও মেয়ের নামেও নানান অভিযোগ এনেছেন পূজা।

পূজা ইনকাম ট্যাক্স অফিসারের মেয়ে। সংবাদমাধ্যমে বিগ বসের প্রাক্তন প্রতিযোগী বলেন, “আমার বাবা সিনহা পরিবারকে কত সাহায্য করেছেন, কিন্তু ওরা গোটা পরিবার আমার কেরিয়ার, আমার জীবন ধ্বংস করে দিল। শত্রুঘ্ন সিনহার খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন। ওঁকে ওঁর বন্ধুদের কোটি কোটি টাকা সাহায্য করে এসেছেন। গত ২০ বছর ধরে ওঁরা আমার পিছনে হাত ধুয়ে পড়ে আছে। আমার বাবা যখন মুম্বইয়ে কাজ করতেন, তখন পুনম সিনহা তাঁর ব্রেনওয়াশ করে বলেন বলিউডে বেশ্যারা কাজ করে”।

পূজা আরও বলেন, “এত বড় ধোঁকাবাজ উনি, আজ ওঁর নিজের মেয়ে সোনাক্ষী সিনহা বলিউডে সিনেমা করছে। অথচ আমার পথ বন্ধ করতে আমার বাবার ব্রেন ওয়াশ করলেন। বাবা ২০০৫-এ রিটায়ারমেন্টের পর পুনে চলে যায়। আমি একাই ভিডিয়োকন গেস্ট হাউসে থাকতাম। তখন আমার উপরের ঘরে বসে পুনম ও শত্রুঘ্ন সিনহা আমার উপর ব্ল্যাক ম্যাজিক করত। ওদের ভয় ছিল আমি ওদের থেকে না বেশি বিখ্যাত হয়ে যাই। আমার ৩৫টা ফিল্ম ওঁরা চুরি করে নিয়েছে। প্রতিবার নিজেদের কথা শাহরুখ খান, সলমান খানের নাম নিয়ে বলে দাবী করেছে এটা নাকি ওরা বলেছে”।

এখানেই শেষ নয়। পূজা আরও বলেন, “২০০৯ সালে আমি একবার ওদের বাড়ি গিয়েছিলাম। সামনে শত্রুঘ্ন সিনহার জন্মদিন ছিল বলে আমি ওঁর জন্য সেন্টেড ক্যান্ডেলস নিয়ে গিয়েছিলাম। ওঁর বউ এতটাই ইনসিকিওর যে ভাইয়ের মতো বন্ধুর মেয়েকেও বিশ্বাস করে না। সেদিন আমাকে কিসব খাইয়ে কালা যাদু করেছিল ওঁরা”।

সিনহা পরিবারের উপর নানান অভিযোগ এনেছেন পূজা। তিনি আরও জানান যে তাঁর অবর্তমানে তাঁর জিনিস চুরি করে নাকি শত্রুঘ্ন সিনহার মেয়ে সোনাক্ষীকে পরানো হত। তাঁর মিডিয়া কনট্যাক্টস স্পন্সর চুরি করে সোনাক্ষীকে দিয়েছেন বলেও অভিযোগ পূজার। তাঁর কথায়, “আমাকে মা’দ’ক খাইয়ে দেহ ব্যবসা করাত ওঁরা। আমার শরীর বেচেই বড় লোক হয়েছে। ২-৩ বছর আগেও বেহুঁশ অবস্থায় আমার ফায়দা তুলেছেন শত্রুঘ্ন সিনহা। ১৭ বছর ধরে এই অত্যাচার চলেছে। অন্য কেউ আমার জায়গায় থাকলে আত্মহত্যা করে ফেলত এতদিনে”।

বিগ বসে সুযোগ পাওয়া নিয়েও অভিযোগ করেছেন পূজা। তাঁর কথায়, “সলমান খান আমাকে খুব ভালোবাসেন। ও অনেক আগে থেকেই চাইতেন আমি বিগ বসে অংশ নিই কিন্তু এই সিনহা দম্পত্তির কারণে তা হয়নি। শেষ অবধি আমি বিগ বসে যাই। কিন্তু, তারপর যখন আমি বিখ্যাত হয়ে তখন হিংসেই জ্বলত ওরা। দবং ৩-এ কাস্টিংয়ের কথাও চলছিল, তখন ফের পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়ায় শত্রুঘ্ন-পুনম। আমাকে জোর করে রিহ্যাবে পাঠিয়ে দেয়। আমার জীবনটা শেষ করে দিয়েছে ওরা”।

পূজার এমন একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগের ফলে বলি ইন্ডাস্ট্রিতে জোর হইচই পড়ে গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত পূজার এমন মন্তব্যের প্রেক্ষিতে সিনহা পরিবারের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

Related Articles

Back to top button