সব খবর সবার আগে।

সেলিব্রিটি আইনজীবীর শরণে রিয়া চক্রবর্তী। সলমন, সঞ্জয়ের আইনজীবীই সওয়াল করবেন অভিনেত্রীর হয়ে!

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে নতুন মোড়। অভিনেতার বাবার তরফে বিস্ফোরক অভিযোগ আনা হয়েছে প্রয়াত অভিনেতার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে। তবে অভিযোগ আসার পর থেকে বসে নেই অভিনেত্রীও। সূত্রের খবর এই বিতর্কিত মামলায় অভিযুক্ত অভিনেত্রীর হয়ে সওয়াল করবেন জনপ্রিয় আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে। দেশের অন্যতম সেরা সেলিব্রিটি ক্রিমিন্যাল লইয়ার হিসাবে পরিচিত সতীশ মানেসিন্ধে। দিল্লির এই আইনজীবীই এর আগে বি-টাউন তারকা সলমন খান, সঞ্জয় দত্তের হাই প্রোফাইল মামলা সামলেছেন। সলমনের কৃষ্ণসার হত্যা এবং সঞ্জয় দত্তে ১৯৯৩ সালে মুম্বই বিস্ফোরণের সঙ্গে জড়িত মামলার আইনজীবী দিল্লিস্থিত সতীশ। ২০০২ সালে সলমন খানের মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানোর মামলায় অভিনেতার জামিন মঞ্জুর করিয়ে সংবাদ শিরোনামে উঠে আসেন সতীশ মানেসিন্ধে। আন্ডার ওয়ার্ল্ডে ডন ছোটা রাজনের স্ত্রী সুজাতা নিকালজের হাই প্রোফাইল মামলারও দায়িত্বে ছিলেন সতীশ মানেসিন্ধে।

সম্প্রতি রিহা ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে চক্রান্ত, সুশান্তের সঙ্গে প্রতারণা এবং তাঁকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মতো অভিযোগ এনেছেন কে কে সিং। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৬, ৩৪১, ৩৪২, ৩৮০, ৪০৬, ৪২০-ধারায় রিয়ার পুরো পরিবারের বিরুদ্ধে পাটনার রাজীব নগর থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন সুশান্তের বাবা কেকে সিং।

গতকাল রাতেই সতীশ মানেসিন্ধের সহকারী আনন্দিনি ফার্নান্দেজকে রিয়ার বাড়িতে দেখা গিয়েছিল। প্রায় তিনঘন্টা অভিনেত্রীর ফ্ল্যাটে ছিলেন এই আইনজীবী। সূত্রের খবর আজই আদালতে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের আবেদন করতে চলেছেন রিহা। গতকালই সেই সংক্রান্ত যাবতীয় কাজই সই করেছেন রিহা চক্রবর্তী।

বিহার পুলিশের তরফে অবশ্য অভিনেত্রীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁরা ব্যার্থ হন। তবে কি গ্রেফতারি রুখতেই অন্তর্বর্তী জামিন না পাওয়া পর্যন্ত পাটনা পুলিশের মুখোমুখি হতে চাইছেন না অভিনেত্রী, এমনটাই মনে করছেন আইনজ্ঞরা।

You might also like
Leave a Comment