বিনোদন

নেশা করিয়ে আপত্তিকর ভিডিও তুলে পর্ণের জন্য ব্ল্যাকমেল করা বলিউডে সাধারণ ঘটনা, বিস্ফোরক শ্রুতি

রাজ কুন্দ্রার পর্ণ-কাণ্ড নিয়ে বর্তমানে গোটা বলিউড উত্তাল। চাকচিক্যতার আড়ালে এমন ধরণের ঘটনা ঘটে থাকে, তা স্বীকার করেছেন অনেকেই। আপাতত রাজ কুন্দ্রা মুম্বই পুলিশের হেফাজতেই রয়েছেন। এবার তাঁকে নিয়ে মুখ খুললেন  মুম্বইয়ের বিজ্ঞাপন জগতের চেনা মুখ শ্রুতি গেরাও।

তিনি জানান যে কাজের ওই অ্যাপ ভিডিওতে অভিনয়ের জন্য তাঁর কাছেও প্রস্তাব আনা হয়েছিল। তাঁকে অবশ্য বলা হয়েছিল যে ওয়েব সিরিজের জন্য তাঁকে ডাকা হচ্ছে। কিন্তু তিনি রাজী হন নি। তবে এখন রাজের গ্রেফতারির পর শ্রুতি মনে হচ্ছে, ওদের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে পেরে নিজেকে নিরাপদ মনে হচ্ছে।

আরও পড়ুন- বুর্জ খলিফায় ফ্ল্যাট, লন্ডনে অ্যাপার্টমেন্ট, ৩ কোটির আংটি, শিল্পাকে দেওয়া রাজের উপহারের তালিকা শুনলে চোখ কপালে উঠবে

শ্রুতি জানান একাধিক কাস্টিং নির্দেশকের কাছ থেকে ফোন আসে তাঁর কাছে। তবে তাদের নাম মনে নেই শ্রুতির। তাঁকে বলা হয়, রাজ কুন্দ্রা ডিজিটাল দুনিয়ায় পা রাখছেন। তাঁর সঙ্গে আলাপ করিয়ে দেওয়ার কথাও হয়। কিন্তু তৎক্ষণাৎ সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন অভিনেত্রী।

রাজের পর্ণ-কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর শ্রুতি সাক্ষাৎকারে তাঁর বলিউড ও টেলিদুনিয়ায়্ কাজ করার অভিজ্ঞতা জানান। তিনি এও বলেন, “আমরা সবা জানতাম, রাজ কুন্দ্রা বড় নাম। কিন্তু দেখা গেল, তিনি পর্ণ বানাতেন”।

শ্রুতির কথায়, বলিউড জগতে কম বয়সি ও পরিশ্রমী অভিনেতা-অভিনেত্রীদের হামেশাই এই ধরনের ঘটনার সম্মুখীন হতে হয়। তিনি বলেন, “জোর করে নেশা করিয়ে তাঁদের অজান্তেই আপত্তিকর ভিডিয়ো তুলে তার পর এই ধরনের পর্ন বা যৌন উদ্দীপক ছবিতে কাজ করানোর জন্য ব্ল্যাকমেল করা হয়। বলিউডে এটা খুবই সাধারণ ঘটনা। যত্রতত্র দেখা যায় এটা”।

শ্রুতি এও জানান যে বিখ্যাত অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অডিশন নেওয়া হয় না। কোন ছবিতে কে বা কারা মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন, তা আগে থেকেই স্থির করা থাকে। শ্রুতির দাবী, এই ধরণের নানান অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় ছোট শিল্পীদের।

আরও পড়ুন- ‘আমার স্বামী পর্ণ বানাতেন না’, রাজের গ্রেফতারি ও ‘হটশটস’ নিয়ে বয়ান দিলেন শিল্পা

শ্রুতি এও জানান, কেবল মহিলারাই নন, পুরুষরাও এমন ভিডিওর শিকার হন। তাদেরও এর জন্য জোর করা হয়। তাঁদের এমন পরিস্থিতিতে ফেলা হয় যে তাদের কাছে আর কোনও পথ খোলা থাকে না। এই কারণেই শ্রুতির অনুরোধ, শুধুমাত্র অভিনেতা-অভিনেত্রীদের এসবের জন্য দোষ দেওয়া একেবারেই উচিত নয়।

Related Articles

Back to top button