বিনোদন

তুমুল বৃষ্টিতেই চলল রোম্যান্স, অন্তরঙ্গ দৃশ্যে শ্যামা ধরা দিল নিখিলের কাছে

বৃষ্টির রাতে আবার কাছাকাছি শ্যামা নিখিল। অনেকদিন পর শ্যামাকে আবার নিজের করে পায় নিখিল। তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের সাক্ষী হলেন দর্শক। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন কথা হচ্ছে জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কৃষ্ণকলি’ নিয়েই। সম্প্রতি সম্প্রচারিত একটি পর্বে এমনই এক দৃশ্য দেখা গেছে এই ধারাবাহিকে। শুটিং করা এই দৃশ্যের অংশ নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন সিরিয়ালের মুখ্য চরিত্র নিখিল ওরফে নীল ভট্টাচার্য। মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সেটি। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে তুমুল বৃষ্টির মধ্যেই খুব কাছাকাছি এসেছে নিখিল ও শ্যামা তাদের অনস্ক্রিন রসায়ন বরাবরই দর্শকের নজর কেড়েছে। কিন্তু যে প্রশ্নটা ঘুরে ফিরে আসছে তা হল, এই করোনা পরিস্থিতিতে শুটিং করার জন্য যে বিধি নিষেধ জারি করা হয়েছিল তা কী আদৌ এই দৃশ্যের জন্য মেনে চলা হয়েছে?

করোনা স্বাস্থ্যবিধি মাথায় রেখেই চলছে শুতিং-এর কাজ, যার ফলে রোম্যান্টিক দৃশ্যগুলি খুবই মেকি মনে হচ্ছে। তবে, নীলের শেয়ার করা শুটিং-এর এই ভিডিও দেখে অনেকেই মনে করছেন, শুটিংএর নিয়মাবলী ঠিকমতো পালন করা হচ্ছে, সেদিকেই দর্শকদের আলোকপাত করাতে চেয়েছেন অভিনেতা।

https://www.instagram.com/p/CFua4G4JutD/?utm_source=ig_web_copy_link

অভিনেতা অভিনেত্রীরা অনেক সময় চ্যানেল ও প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকার কারণে তাদের অনিচ্ছা সত্ত্বেও চ্যানেলের নির্দেশ মানতে বাধ্য হন। তাই জন্যই হয়ত নীল রূপকের আশ্রয় নিয়ে দর্শকদের সেটাই বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, এমন কথাও উঠেছে অভিনয় মহলে।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই করোনা সংক্রমিত হয়েছিলেন নীল। আপাতত সুস্থ হয়ে শুটিং-এ ফিরলেও ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী কিছু বিধিনিষেধ মেনে চলতে হচ্ছে তাকে। এমন অবস্থায়, বৃষ্টি ভেজা দৃশ্যে বা ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করা নীলের পক্ষে মঙ্গলজনক না-ও হতে পারে। তবে এই বিষয়ে চ্যানেল বা প্রযোজনা সংস্থার থেকে কোনওরকম প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

‘কৃষ্ণকলি’ ধারাবাহিক বারবার বিতর্কের মুখে পড়েছে। কখনও শ্যমার মেক-আপের কারণে, কখনও শ্যামাকে স্ক্রিনে ফর্সা রঙে দেখানোর কারণে, বা কখনও একই বাড়িতে দুই বউকে নিয়ে নিখিলের একসঙ্গে থাকার কারণে। কিন্তু তবুও টিআরপির দৌড়ে কিন্তু বেশ ভালো স্থানেই রয়েছে সিরিয়ালটি। জি বাংলার অন্যান্য কিছু সিরিয়ালের সম্প্রচার বন্ধ হয়ে গেলেও এখনও রেসে ভালোভাবেই টিকে আছে ‘কৃষ্ণকলি’।

Related Articles

Back to top button