বিনোদন

‘তোমার গলায় রক মিউজিক মানায় না’, ফের সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার বাংলার ছেলে স্নিগ্ধজিৎ

এবছরের সা রে গা মা পা-এর মঞ্চে বাংলা ও বাঙালির জয়জয়কার। এই রিয়ালিটি শোতে এবার বাংলা থেকে পাঁচজন প্রতিযোগী জায়গা করে নিয়েছেন। এই শো শুরু হওয়ার আগেই বাংলার ছেলে স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক বিশাল দাদলানির সুরে গান গাওয়ার অফারও পেয়ে গিয়েছেন।

গ্র্যান্ড প্রিমিয়ারে বিখ্যাত হিন্দি গান ‘জয় জয় শিবশঙ্কর’ গানটি গাইতে দেখা যাবে স্নিগ্ধজিৎকে। বিশাল-শেখরের এই গান এখনও যে কোনও পার্টি মাতাতে সিদ্ধহস্ত। হোলি হোক বা দিওয়ালি, যে কোনও পার্টিতেই এই গানের তালে নাচ করতে দেখা যায় সকলকে। এই গানটিই লাইভ শো-তে গেয়েছেন স্নিগ্ধজিৎ। তাঁর এই গানে মুগ্ধ হয়েছেন জুড়ি বেঞ্চ। ৯৯ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন তিনি।

স্নিগ্ধজিৎ-এর এই গান শুনে প্রশংসা করেন বিচারক হিমেশ রেশমিয়া, বিশাল দাদলানি ও শঙ্কর মহাদেবনও।  নিজের গাওা এই গানের একটি ভিডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন স্নিগ্ধজিৎ। তাঁর এই গান শুনে ভালোবাসা উজাড় করে দিয়েছে নেটিজেনরা। কেউ কেউ তো আবার তাঁকে এখনই বিজয়ী ঘোষণা করে দিয়েছেন।

বালুরঘাট থেকে প্রায় ৬০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত একটি ছোট্ট শহর বুনিয়াদপুর। সেই শহরেরই ছেলে স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক। এর আগে বাংলা সারেগামাপা-তে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন তিনি। কিন্তু ইতিমধ্যেই কিছু নেটিজেনের কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছে স্নিগ্ধজিৎ।

আসলে পরপর দু’বার বিশাল দাদলানির গান গেয়েছেন স্নিগ্ধজিৎ। এই কারণে শুনতে হচ্ছে যে গানের অফার পেয়ে বিশালকে হাতে রাখার জন্যই এমনটা করছেন তিনি। এক নেটিজেন আবার তাঁকে পরামর্শ দিয়ে বলেছে, “তোমার গলায় রক মিউজিক মানায় না”। এর আগে ভাঙা বাড়ি থেকে স্ত্রীকে ভিডিও কল করানো নিয়েও কটাক্ষ করা হয়েছিল তাঁকে।

Related Articles

Back to top button