সব খবর সবার আগে।

টিআরপি রেটিংয়ে নীচে, ‘শ্রীময়ী পাল্টে সিরিয়ালের নাম রাখুন ন্যাকাময়ী!’ ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন নেট নাগরিকরা

ধারাবাহিকে নানা টুইস্ট অ্যান্ড টার্নস এনেও কোনো লাভ হচ্ছে না। টিআরপি চার্টের সেরা দশে কোনমতে জায়গা করতে পারছে ‘শ্রীময়ী’। আগে যেখানে প্রতি সপ্তাহের টিআরপি চার্টের সেরা পাঁচের মধ্যে দেখা যেত ‘শ্রীময়ী’র নাম। কিন্তু সেখানে আজ সেরা দশে কোনমতে নিজের জায়গা টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করছে ধারাবাহিক।

এই মুহূর্তে শ্রীময়ী-রোহিতের নতুন সংসার এবং জুনের শ্রীময়ীর পরিবারে ফিরে আসা কিছুই ভালো লাগছে না দর্শকদের। চলতি সপ্তাহে নবম স্থানে জায়গা করেছে ‘শ্রীময়ী’। কিন্তু এবার সেই স্থান থেকে ধারাবাহিককে উপরে তুলতে, ফের আরও একটি টুইস্ট নিয়ে হাজির হয়েছে ‘শ্রীময়ী’।‌ সামনে এসেছে নতুন প্রোমো।

মুহূর্তের মধ্যেই নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে শ্রীময়ী ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো। যেখানে দেখা গিয়েছে, শ্রীময়ী নিজের প্রাক্তন শ্বশুরবাড়িতে এসে হাজির হয়েছে রোহিত সেনেকে নিয়ে। সেখানে কারোর মৃত্যু ঘটেছে। শেষবারের মতো সেই মানুষটিকে একবার দেখতে ছুটে এসেছে শ্রীময়ী। কিন্তু সেখানে অনিন্দ্যর মা কিছুতেই তাঁকে বাড়িতে ঢুকতে দেবেনা। উল্টে ‘সর্বনাশী মেয়ে’ বলে তাঁকে আটকে দেয় বাড়ির দরজার।

এর আগে অনিন্দ্যর মার থেকে অনেক অপমান জুটেছে শ্রীময়ী কপালে। অনেকবারই শ্রীময়ীকে কটু কথা বলেছে সে। এবারের প্রোমোতে দেখা গেল, সে শ্রীময়ী আর রোহিত সেনকে বাড়ির ভিতর যেতে দিতে মোটেও রাজি নয়। অন্যদিকে পাশে দাঁড়িয়ে গোটা ঘটনার মজা নিতে দেখা গেল জুন গুহকে। প্রোমোতে তাঁর কোনও বক্তব্য না থাকলেও, শ্রীময়ীর কাকুতি-মিনতি দেখে বেশ মজা নিয়েছে সে। তা তাঁরর ভাব-ভঙ্গিতে ধরা পড়েছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

সঙ্গে প্রোমোতে দেখা যায়, শ্রীময়ী বলে, ‘আমি বাইরে দাঁড়াচ্ছি, ওকে অন্তত ভেতরে যেতে দিন, শেষবারের মতো একবার মানুষটাকে দেখতে দিন।’ তবুও অনিন্দ্যর মা মানে না। কিন্তু এবার প্রশ্ন উঠেছে মৃত্যু ঘটেছে কার? প্রোমোতে সেই রহস্য বজায় রেখেছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। দর্শকদের মনে হয়েছে শ্রীময়ীর প্রাক্তন শ্বশুরমশাই মারা গিয়েছেন। কিন্তু চ্যানেলের কর্তৃপক্ষের ধারণা হতে পারে, প্রোমো দেখে দর্শকদের আগ্রহ হবে সিরিয়াল দেখার। তবে এখানে দর্শকরা মোটেই খুশি নয় প্রোমো দেখে। সেই ক্ষোভ উপছে পড়েছে কমেন্ট বক্সেও।

আদিত্যদেব সেনগুপ্ত সিরিয়ালের অন্যতম পজেটিভ চরিত্র ছিলেন। তবে এভাবে তাঁকে মেরে ফেলার যুক্তি খুঁজে পাচ্ছেনা দর্শকবৃন্দ। তাই মন্তব্য করেছেন, “এসব কি গল্পের নতুন মোড় হচ্ছে? কোনো মাথা মুন্ডু নেই। এর আগে শ্রীময়ীর নতুন জীবনে হঠাৎ করে নিয়ে এলেন কূটনি জেঠিকে। যেখানে রোহিত সেনের কেউ ছিল না হঠাৎ জেঠি চলে এলো। এখন আবার কাকে মেরে ফেললেন! যতদূর সম্ভব শ্বশুরমশাইয়ের পজেটিভ চরিত্রকেই খুন করেছেন! এগুলো গল্পের নতুন মোড় হচ্ছে??” অনেকেই “জঘন্য হয়েছে” বলে মন্তব্য করেছেন।

কেউ লিখেছেন, সিরিয়ালের নাম ‘ন্যাকাময়ী’ হলে খুবই ভালো হতো। প্রোমো

র মন্তব্য পড়ে মনে হচ্ছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষের ভাবনা উল্টো পড়ে গিয়েছে। শ্রীময়ীর নতুন প্রোমো দেখে একদমই খুশি নন দর্শকরা। আবার অনেকেই প্রশ্ন জিয়িয়ে রেখেছেন নিজের মধ্যে। দেখার এবার, হঠাৎ কেন বিয়ের পর শ্রীময়ী নিজের পুরনো শ্বশুর বাড়িতে হাজির হয়েছে? তার জন্য নজর রাখতে হবে স্টার জলসার পর্দায়।

You might also like
Comments
Loading...