সব খবর সবার আগে।

ফেব্রুয়ারিতেই মুম্বই পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিল সুশান্তের পরিবার, গ্রাহ্য করেনি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ

সুশান্ত সিং রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে রহস্য আগে ছিলই, সম্প্রতি অভিনেতার বাবা রিয়া চক্রবর্তী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানোর পরে উঠে আসছে বহু তথ্য যেগুলি থেকে সুশান্তের অস্বাভাবিক মৃত্যু রহস্য আরও ঘনীভূত হচ্ছে।

বুধবার সুশান্তের বাবা কেকে সিংয়ের আইনজীবী বিকাশ সিং সংবাদমাধ্যমের সামনে এমন কিছু বক্তব্য পেশ করেন যা বির্তকের জন্ম দিয়েছে। তিনি জানিয়েছেন যে, ফেব্রুয়ারি মাসের ২৫ তারিখ সুশান্তের পরিবারের তরফে বান্দ্রা পুলিশের ডিসিপিকে জানানো হয়েছিল সুশান্ত সিং রাজপুত ভালো সঙ্গতে নেই এবং তাঁর জীবন সংকটে রয়েছে। কিন্তু বান্দ্রা পুলিশের তরফ থেকে কোনরকম পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। সুশান্ত সিং রাজপুত সেই সময়ে রিয়া চক্রবর্তীর ‘অধীনে’ ছিলেন।

তিনি সর্বভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, “আমাদের কাছে সমস্ত প্রমাণ রয়েছে। যা উপযুক্ত জায়গায় আমরা পেশ করব।” তাঁর আরও দাবি যে, বিহার পুলিশও প্রথমে অভিযোগ নিতে চায়নি। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার যখন এই ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করেন তখন বিহার পুলিশ এই সংক্রান্ত মামলার এফআইআর নিতে রাজি হয়।

একটা ব্যাপার দৃশ্যত স্পষ্ট যে মুম্বই পুলিশের তদন্তে রীতিমতো অসন্তুষ্ট সুশান্তের পরিবার। কারণ অভিনেতার মৃত্যুর ৪৬ দিন পরেও অনেক উল্লেখযোগ্য তথ্য তাদের হাতে এখনো পৌঁছায়নি। বিকাশ সিং এই সাক্ষাৎকারে আরও জানিয়েছেন যে, “পাটনায় এফআইআর এখন দায়ের করা হয়েছে কারণ পরিবার একটা শকের মধ্যে ছিল এবং মুম্বই পুলিশ এফআইআর দায়ের করছিল না। তাঁরা বেশ কিছু বড় প্রযোজক সংস্থা নাম জোর করে জড়ানোর চেষ্টা করছিল এবং মামলাটি অন্যদিকে ঘুরে যাচ্ছিল।” তাই ঘটনাটি মুম্বইতে ঘটলেও একপ্রকার বাধ্য হয়েই সুশান্তের পরিবার পাটনায় এফআইআর দায়ের করতে বাধ্য হয়েছে বলে জানাচ্ছেন বিকাশ সিং।

এছাড়াও রিয়া চক্রবর্তীকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী। তাঁকে জেরা করা অত্যন্ত জরুরি বলেই মনে করছেন তিনি। অন্যদিকে এফ আই আর দায়ের হওয়ার খবর পেতেই রিয়া চক্রবর্তী ‘নিরুদ্দেশ’ বলে জানা গিয়েছে। তাঁর আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে সুপ্রিম কোর্টে তাঁর মক্কেলের হয়ে একটি পিটিশন দায়ের করেছেন। যেখানে পাটনা পুলিশের কাছে দায়ের করা এফআইআর মুম্বইয়ে স্থানান্তরিত করার আবেদন জানানো হয়েছে।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Leave a Comment