সব খবর সবার আগে।

টলিউডে ছেলেদেরও দেওয়া হয় শোওয়ার শর্ত, শ্রীলেখার স্বপক্ষে বিস্ফোরক অভিনেতা তথাগত মুখোপাধ্যায়

দেখতে দেখতে একসপ্তাহ হয়ে গেল বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত এই পৃথিবী ছেড়ে চলে গিয়েছেন চিরতরের মত। সেইসঙ্গে তুলে দিয়ে গেছেন অনেক ক’টা প্রশ্ন। যার মধ্যে নেপোটিজম বা স্বজনপোষণ নিয়ে এখন চলছে সব থেকে বেশি চর্চা। বলিউডে এই নিয়ে একের পর এক মুখ খুলছেন ছোট-বড় অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে প্রযোজক, পরিচালক। সম্প্রতি টলিউডে এই বিষয় নিয়ে বিস্তারিত ভাবে বোমা ফাটিয়েছেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। এবার শ্রীলেখা মিত্র-র দলে নাম লেখালেন অভিনেতা তথাগত মুখোপাধ্যায়। তথাগত যে অভিযোগ জানিয়েছেন তা বিস্ফোরক। তিনি জানিয়েছেন যে অভিনেতাদেরও শোয়ার শর্ত দেওয়া হয় টলিউডে! তার এই বক্তব্য সামনে আসার পরেই টলিউডে শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক।


শ্রীলেখা যেমন তাঁর ইউটিউব লাইভে অভিযোগ করেছেন, অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের একসময় প্রেম ছিল যার জন্য তাঁকে হারাতে হয়েছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এছাড়াও তিনি পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, প্রযোজক অশোক ধানুকা সহ আরও অনেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন। স্বস্তিকা আবার তাঁর সেই লাইভের পাল্টা একটি ফেসবুক পোস্ট করেছেন অবশ্যই নাম উল্লেখ না করে। ‌ সেটি আবার শেয়ার করেছেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন“নেগেটিভিটি মেনে নে নাহলে বাঁচতে পারবি না শ্রীলেখা”, উপদেশ দিলেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়


কিন্তু শ্রীলেখার হয়েও মুখ খুলছেন অনেকে। এবার শ্রীলেখার স্বপক্ষে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস দিলেন অভিনেতা তথাগত মুখোপাধ্যায়। তথাগত শ্রীলেখার উদ্দেশ্যে লিখেছেন, “গতকাল রাতে দেখলাম, নতুন করে বলার কিছু নেই, তুমি তোমার সত্যিগুলো তোমার মতন করে বলেছ, বরাবরই বলে আসছ, শুধু এভাবে হয়তো প্রথমবার, হয়তো আরো অনেক সত্যি আছে যেগুলো কোনো একটা বিকেলবেলায় বলতে ইচ্ছে করবে, আবার নাও ইচ্ছে করতে পারে। সত্যির একটা চূড়ান্ত নগ্নতা রয়েছে তাই লজ্জাবোধও প্রবল। শ্রীলেখা তুমি লজ্জা পেও না তাহলে কিন্তু আরও অনেক শ্রীলেখা চুপ করে যাবে। অনুপ্রেরণা জিনিসটা বড় ছোঁয়াচে, সাহসেরই মতন। কতগুলো মুখই তো সব জায়গাতে আছে। ওই যে লজ্জা ওর কারণেই তো আমরা বলে উঠতে পারিনা। নিজেকে বলার লজ্জা, কেউ আমাকে টাকার জায়গাতে হরলিক্সের শিশি দিয়েছে বলতে পারার লজ্জা, লোকজনকে জানানোর লজ্জা, আসলে লজ্জিত যাদের হওয়া উচিত তারা বহাল তবিয়তে বুক ফুলিয়ে নিজের ছবিতে মালা নেন।”

আরও পড়ুনযা পেয়েছি বাবার জন্য পেয়েছি, আমার কর্মফলই আমাকে এই পরিবারে নিয়ে এসেছে, স্টারকিড সোনমের বার্তায় নতুন বিতর্কের সৃষ্টি


এরপরই আসল বোমাটা পাঠিয়েছেন তথাগত। তিনি সরাসরি অভিযোগ করেছেন কলকাতার এক পরিচালকের বিরুদ্ধে যিনি তার পুরুষ অভিনেতাদের কাস্টিং কাউচ করতেন। “ক’জনই বা জানতে চান নামী সচেতন, উদারমনস্ক লেখক তথা পরিচালক তার পুরুষ অভিনেতাদের সিনেমায় সুযোগ দিতে তার সাথে শোওয়ার প্রাথমিক শর্ত ডিঙোতে বাধ্য করতেন।” ঠিক এই ভাষাতেই নিজের পোস্টে ওই পরিচালকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তথাগত।

আরও পড়ুন“পুড়ে মরে যাক আমার তাতে কিচ্ছু যায় আসেনা”, সুশান্ত এর মৃত্যুতে এ কী বললেন সোনাক্ষী?


টেলি অভিনেত্রী দেবলীনা মুখোপাধ্যায়ের স্বামী হলেন তথাগত। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় যে রিয়্যালিটি শোতে বাংলা সেলিব্রিটিদের সাক্ষাৎকার নিতেন সেখানে দেবলীনা একবার জানিয়েছিলেন যে টলিউডে কাস্টিং কাউচ ভালোমতোই চলে।


এই ঘটনা নিয়ে তথাগত লিখেছেন যে, দেবলীনার পরে আর কেউ সেদিন স্বীকার করেনি সত্যিটা, পরেও না, কেউ করেও না। কর্পোরেট অফিসের মেয়েটা যেমন ভয়ে লজ্জায় ঘেমে-নেয়ে চুপ করে থাকে কিন্তু কোন একদিন সেও সাহস পেয়ে রেজিগনেশন লেটার টা ছুঁড়ে মারে তেমনই শ্রীলেখাও এবার টলিউডের উপর নিজের রেজিগনেশন লেটারটা ছুঁড়ে মারলেন বলেই মনে করছেন তথাগত।


তবে তথাগত এও লিখেছেন যে শ্রীলেখা ছাড়াও এর আগে টলিউডের অনেক অভিনেতা অভিনেত্রী এই বিষয় নিয়ে মুখ খুলেছিলেন কিন্তু তাদের কথা কেউ শোনেনি শুনেও না শোনার ভান করেছে। তথাগত যে সব অভিনেতাদের নাম করেছেন তাদের মধ্যে যীশু সেনগুপ্ত, টোটা রায়চৌধুরী, চিরঞ্জিত চক্রবত্তী, অভিষেক চট্টোপাধ্যায়, কুশল চক্রবর্তী, তাপস পাল রয়েছেন।


তথাগত বলছেন যে, সুশান্ত সিং রাজপুত কিন্তু সেদিন ট্রেন্ডিং ছিল না তেমনি শ্রীলেখার এই সত্যিটাকে সামনে নিয়ে আসা একদিন মিডিয়ার কাছে গুরুত্ব হারাবে তাতে কিন্তু সত্যিটা বদলাবে না। কিন্তু শ্রীলেখার এই বলার ফলে তৈরি হবে একনাগাড়ে বলে যাওয়ার একটা অভ্যাস আর সেই অভ্যাস থেকেই তৈরি হবে একনাগাড়ে সত্যি শুনে যাওয়ার অভ্যাস। তথাগত এখন টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে এই বদলেরই স্বপ্ন দেখছেন।


Leave a Comment