বিনোদন

শ্রুতি-স্বর্ণেন্দুর প্রেমে ভাঙন, জোর গুঞ্জন টেলিপাড়ায়, সোশ্যাল মিডিয়ায় এই নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী!

নানান সময় নানান গুঞ্জনের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি। বাবার বয়সী পুরুষের সঙ্গে প্রেম করছেন বলে এতদিন এই নিয়ে নানান কথা শুনতে হয়েছে তাঁকে। এবার উঠল অন্য এক গুঞ্জন। টেলিপাড়ায় রটেছে যে পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দারের সঙ্গে নাকি শ্রুতি দাসের সম্পর্ক ভেঙেছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ঘুরপাক খাচ্ছে এই একই কথা।

এবার এই বিষয় নিয়ে আজ, ২৬শে জানুয়ারি স্বমহিমায় নিজের খুব পরিচিত কারোর প্রতি আক্রমণ শানালেন শ্রুতি। তিনি সাফ জানান যে এই গুঞ্জন সম্পূর্ণ মিথ্যে। তাঁর লেখনী অনুযায়ী, তাঁর খুব পরিচিত কেউই তাঁর সম্বন্ধে এই গুঞ্জন রটাচ্ছে।

কিন্তু কে সে? তাঁর পরিবারের কেউ নন কারণ শ্রুতির পরিবার স্বর্ণেন্দুকে খুবই পছন্দ করে। তবে? কে? জানার জন্য তাঁকে এক সংবাদমাধ্যমের তরফে হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ করা হয়েছিল। উত্তরে শ্রুতি জানান, তিনি নিজেকে আড়ালে রাখতে শিখে গিয়েছেন। তাঁর কথায়,“লোকে সারাক্ষণ আজেবাজে কথা বলেই চলেছে! আমার আর কী করার আছে”? তাঁর কথায়, এটি তাঁর অত্যন্ত ব্যক্তিগত বিষয়। তাই এই  নিয়ে তিনি মুখ খুলতে চান না।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে শ্রুতি লেখেন, “আমায় একদিন তুই-ই বলেছিলি, ইন্ডাস্ট্রিতে কেউ কারওর বন্ধু হয় না শ্রুতি। সবাইকে এত বিশ্বাস করে ভালবাসিস না, ঠকবি! আমি বলেছিলাম, তুই তো ও রকম না, ব্যস। আজ আমিই ঠকলাম তোকে ভালবেসে। স্বর্ণেন্দুর সঙ্গে আমার ব্রেক-আপ হয়নি, হবেও না”। এরপরই তাঁর অনুরোধ, “খামোকা আমাদের ব্রেক আপ হয়েছে এই নিয়ে মেসেজ করছেন যাঁরা করবেন না”।

বরাবরই চেনা ছকের বাইরে এসে কথা বলেছেন শ্রুতি। তাঁর গায়ের রঙ, পোশাক নিয়ে এর আগে বর্ধমানের কাটোয়ার মেয়েটিকে কম কটাক্ষ সহ্য করতে হয়নি। এসেছে তাঁর মরণ কামনাও। তবে সবকিছুকে উপেক্ষা করে এগিয়ে গিয়েছেন তিনি। কিছুদিন আগে মামাভাতের বদলে প্রথা ভেঙে বোনপোকে মাসিভাত খাইয়েছিলেন তিনি।

সমাজকে বার্তা দিয়ে শ্রুতি বলেছিলেন, “নিজের বোনপোকে মিমিভাত খাওয়ানোর মজাই আলাদা। আমি সফল। প্রথা ভাঙার আনন্দই অন্য রকম”। অভিনেত্রী প্রশ্নও ছুঁড়ে দিয়েছিলেন যে সবসময় মামা ভাত কেন? মা-মাসিরাই তো খাওয়ান রোজ বাচ্চাদের। বাবা বা মেসোরা কদাচিৎ।

Related Articles

Back to top button