বিনোদন

মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে রাখি সাওয়ান্তের তুলনা টেনে ব্যাপক বিতর্কে জড়ালেন যোগীরাজ্যের বিধানসভার স্পিকার

মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে রাখি সাওয়ান্তের তুলনা টানলেন যোগীরাজ্যের বিধানসভার স্পিকার হৃদয় নারায়ণ দীক্ষিত। এর জেরে ব্যাপক বিতর্কের মধ্যেও পড়লেন উত্তরপ্রদেশের এই বিজেপি নেতা। এরপরই টুইট করে নিজের মন্তব্যের সপক্ষে সাফাইও দেন স্পিকার।

উন্নাও জেলার বঙ্গারমাও বিধানসভা এলাকায় ‘প্রবুদ্ধ বর্গ সম্মেলন’-এ যোগ দেন এই বিজেপি নেতা। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিতর্কে জড়ান তিনি। এদিন এই সম্মেলনে হৃদয় নারায়ণ দীক্ষিত বলেন যে পড়াশোনা করলেই কেউ মহান হয়ে যায় না। এর জন্য আরও কিছু গুণ থাকা প্রয়োজন।

এই প্রসঙ্গ টেনেই তিনি মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে রাখি সাওয়ান্তের তুলনা করেন। বলেন, গান্ধীজি নিয়মিত সংবাদপত্র পড়তেন, কম পোশাক পরতেন। শুধু ধুতি পরতেন তিনি। গোটা দেশ তাঁকে বাপু নামে ডাকত। এমন কথা বলার পরই আচমকাই তিনি বলে বসেন, “যদি কাপড় খুলে ফেললেই কেউ মহান হয়ে যেতে পারে তাহলে রাখি সাওয়ান্ত মহাত্মা গান্ধীর চেয়েও বড় হয়ে যেতেন”।

বিজেপি নেতার এই মন্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় লাগেনি। এরপরই শুরু হয় তাঁকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা। বিরোধী দলের নেতারা বিজেপির এই প্রবীণ নেতাকে তোপ দাগার পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশের শাসকদল বিজেপিকে তুমুল আক্রমণ শানান। একজন বিধানসভার স্পিকারের মুখ থেকে এমন মন্তব্য কী করে শোনা যায়, এই নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক।

এমন তীব্র সমালোচনার জেরে পরে তিনি আবার নিজের বক্তব্যের সাফাই দিয়ে টুইট করেন। টুইটারে হৃদয় নারায়ণ দীক্ষিত লেখেন, “সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার বক্তব্যের কিছু অংশ বিকৃত করে প্রচার করছে। আসলে এটা উন্নাওয়ের প্রবুদ্ধ সম্মেলনের দীর্ঘ ভাষণের একটি অংশ মাত্র। যেখানে সঞ্চালক আমার পরিচয় দিতে গিয়ে আমাকে প্রসিদ্ধ লেখক হিসেবে ব্যাখ্যা করেছিলেন। আমে এই প্রেক্ষিতেই বলে চেয়েছিলেন কয়েকটি বই লিখলেই কেউ প্রসিদ্ধ হয়ে যায় না”।

এরপরই ফের উত্তরপ্রদেশের বিধানসভার স্পিকার অনুরোধ করেন যাতে তাঁর কথার ভুলভাবে ব্যাখ্যা না করা হয়।

Related Articles

Back to top button