সব খবর সবার আগে।

পরীক্ষায় ফার্স্ট ক্লাস পেয়ে ‘ক্রেজি’কে যোগ্য জবাব দেওয়ার পণ, শেষ পর্যন্ত সফল হবে কী গুনগুন?

টেলিভিশনের পর্দায় তো প্রচুর ধারাবাহিক দেখানো হয়। কিন্তু এর  মধ্যে অল্প কিছু ধারাবাহিকই মানুষের মন ছুঁয়ে যায়। ‘খড়কুটো’ও তেমনি একটি ধারাবাহিক। শুরুর দিন থেকেই এই ধারাবাহিক মানুষের মন জয় করে এসেছে। টিআরপির দিক থেকেও এই ধারাবাহিক বেশ প্রথমের দিকেই স্থান পেয়ে এসেছে।

এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র হল গুনগুন ও সৌজন্য। গুনগুনের চাঞ্চল্য মনোভাব আর সৌজন্যের গোমড়ামুখ, এই দু’য়ে মিলে ভালোই চলছিল ধারাবাহিক। তবে মাঝে যেন গল্পের তার কাটে। সবসময় হাসি-খুশি করতে থাকা পরিবারে যেন নেমে আসে অন্ধকারের ছায়া।

আরও পড়ুন- ফের টেলি পর্দায় ফিরছে ‘পবিত্রা রিস্তা’, মানবের চরিত্রে দেখা মিলবে শাহির শেখের, থাকছেন অঙ্কিতাও

মাঝে সৌজন্যের বাবা ভজনবাবুর কিছু অর্থনৈতিক সমস্যার কথা দেখানো হয়, এরপরই মুখার্জি পরিবারে আগমন ঘটে নতুন অতিথি আদিলের। এই আদিলকে নিয়ে গুনগুন ও সৌজন্যের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি শুরু হলে গুনগুন শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে বাবার কাছে চলে যায় ও পণ করে সে পরীক্ষায় ফার্স্ট ক্লাস পাবেই।

এদিকে, গুনগুনের জন্য মন খারাপ মুখার্জি পরিবারের সকলের। সৌজন্যেরও মুখভার। গুনগুন বলে দিয়েছে সে তাঁর ‘ক্রেজি’-কে ডিভোর্স দেবে। এদিকে শেষে জানা যায়, গুনগুনের সঙ্গে ঝামেলা বাঁধাবার আইডিয়া সৌজন্যকে দেয় গুনগুনেরই বাবা কৌশিক। যাতে গুনগুন শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে এসে নিজের পড়াশোনায় মন দেয়। কিন্তু এখন কৌশিকবাবু পালটি খাওয়ায় সব দোষ হয় সৌজন্যের। তবে কৌশিকবাবুও চেষ্টা চালাচ্ছেন মেয়ে-জামাইকে এক করার।

এরই মধ্যে সৌজন্য সিদ্ধান্ত নেয় যে বিদেশ চলে যাবে। এই শুনে তড়িঘড়ি শ্বশুরবাড়ি ফিরে আসে গুনগুন। এখন যদিও গুনগুন ও সৌজন্যের মধ্যে মান-অভিমানের পালা চলছে। কিন্তু পরে যে তা ঠিক হয়ে যাবে, তা বেশ স্পষ্ট।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

আরও পড়ুন- রাগের চোটে নিজেকেই নিজে থাপ্পড় মারছেন অনু মালিক, এমন কাণ্ড দেখে হতবাক নেটিজেনরা

এর মধ্যেই শুরু হয়েছে গুনগুনের পরীক্ষা। সে পণ নিয়েছে পরীক্ষায় ফার্স্ট ক্লাস পেয়ে সে সৌজন্যকে দেখিয়ে দেবে যে সেও কারোর চেয়ে কোনও অংশে কম নয়। গুনগুন কী শেষ পর্যন্ত নিজের এই প্রতিজ্ঞা রাখতে পারবে? নিজেকে কী সে প্রমাণ করতে পারবে? তা তো জানা যাবে আগামী কিছু পর্বেই।

You might also like
Comments
Loading...