বিনোদন

স্বামীর দোকান থেকে কেনা ডিয়ার লটারির টিকিটই ঘুরিয়ে দিল ভাগ্যের চাকা, লটারি সংবাদ দেখে রাতারাতি কোটিপতি বাংলার বউ

স্বামীর লটারির দোকান। সেই দোকান থেকে কেনা লটারির টিকিটের লটারি সংবাদ (Lottery Sambad) দেখেই ঘুরে গেল ভাগ্যের চাকা। নিজেই জিতে গেলেন প্রথম পুরস্কার এক কোটি টাকা। রাতারাতি কপাল ফিরল উত্তরবঙ্গের মালবাজারের দম্পতির জীবন। কিন্তু পুরস্কার জিতেই পুলিশের দ্বারস্থ হতে হল দম্পতিকে। জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গের মালবাজারের নাগরাকাটা মডেল ভিলেজের বাসিন্দা হলেন উমা থাপা।
টেলারিং-এর কাজ করেন তিনি। সেই এলাকাতেই তাঁর স্বামীর ফাস্ট ফুডের দোকান রয়েছে। এই দোকানের পাশাপাশি ডিয়ার লটারির (Dear Lottery) টিকিট বিক্রির কাজও করেন তিনি।
স্বামীর দোকান থেকে মাঝেমধ্যেই লটারির টিকিট কিনতেন উমা। সেই মতো গত মঙ্গলবারও স্বামীর দোকান থেকে ৬০ টাকা দিয়ে লটারির টিকিট কিনেছিলেন তিনি। কোনওদিন যে কোটি টাকা তিনি জিতবেন তা ভাবতেও পারেন নি মহিলা।
সেদিন রাত ৮টার সময় শুরু হয় নাগাল্যান্ড রাজ্য লটারির খেলা। খেলা শেষে লটারি সংবাদ-এর ফলাফল বেরনোর পর স্ত্রীর থেকে লটারির টিকিট চেয়ে নম্বর মেলান উমার স্বামী। আর তা মেলাতেই চোখ ছানাবড়া। তিনি দেখেন যে প্রথম পুরস্কার জিতেছেন তাঁর স্ত্রী নিজেই। রাতারাতি কোটিপতি হয়ে যান থাপা দম্পতি।
ডিয়ার লটারিতে এই অর্থ জেতার পর উমা জানান, “এই অর্থ দিয়ে ছেলেমেয়েদের পড়াশুনা করাব। আর বাকি অর্থ দিয়ে বাবা মায়ের জন্য একটি বাড়ি তৈরি করব”।
তবে এত টাকা জিতেও মনে শান্তি নেই থাপা পরিবারের। এক আতঙ্ক গ্রাস করেছে তাদের। এই কারণে নিরাপত্তার চেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন থাপা দম্পতি।

Related Articles

Back to top button