উৎসব

পুজোয় মা দুর্গাকে ভুলেও এই জিনিসগুলি কখনও নিবেদন করবেন না, এতে রুষ্ট হন মহিষাসুরমর্দিনী

শুরু হয়ে গিয়েছে দুর্গাপুজো। রাত পোহালেই ষষ্ঠী, মায়ের বোধন। মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে ঠাকুর দেখার ধূম। প্রস্তুতি পর্বও শেষ। ঢাকে কাঠি পড়েছে। আগামীকাল থেকেই পুরোদমে শুরু হয়ে যাবে দেবী আরাধনা। দেবী দুর্গার পুজোর জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়। দেবীকে কী জিনিস অর্পণ করা হচ্ছে, সেদিকে বিশেষ নজর দেওয়া উচিত।

নবরাত্রিতে নয় দিন দেবীর ৯ রূপের পুজো হয়। দেবীপক্ষে মা দুর্গাকে কী কী নিবেদন করা হচ্ছে, তা নিয়ে বেশ বিভ্রান্তি রয়েছে। তবে শাস্ত্রে এমন কিছু জিনিসের নাম উল্লেখ করা রয়েছে, যা অর্পণ করলে দেবী অশুভ প্রভাব পড়তে পারে।

ফুল

নবরাত্রিতে মা দুর্গার নানান রূপকে পুজো করা হয়। আর নানান রূপকে নানান রঙের ফুল দিয়ে পুজো করার রীতি রয়েছে। এই সময় মা দুর্গাকে সবসময় তাজা, সুগন্ধি ও লাল রঙের ফুল নিবেদন করা উচিত। বাসি ফুল দেবীকে কখনই অর্পণ করবেন না। এতে অত্যন্ত রেগে যান দেবী দুর্গা। নবরাত্রিতে মা দুর্গাকে ভুল করেও ধুতুরা, হরিঙ্গর, বেল এই সমস্ত ফুল অর্পণ করা উচিত নয়। এতে মা দুর্গার রোষ পড়তে পারে।

অক্ষত

পূজায় অক্ষতের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। বিশ্বাস করা হয় যে অক্ষত ছাড়া কোনও পূজা বা আচার সম্পূর্ণ হয় না। এই কারণেই পূজায় অক্ষতকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়ে থাকে। নবরাত্রির সময় দেবী দুর্গাকে অক্ষত নিবেদন করার সময় বিশেষ যত্ন নিন যাতে তা ভেঙে না যায়। তবে দেবীকে অক্ষত নিবেদনের আগে গঙ্গাজল দিয়ে শুদ্ধ করতে হবে।

পেঁয়াজ-রসুন

দেবীপক্ষে দেবীর আরাধনার জন্য তাঁর প্রিয় জিনিসই নিবেদন করা হয়ে থাকে। প্রতিদিন দেবীকে সাত্ত্বিক জিনিস নিবেদন করুন। ভোগের জিনিসগুলি পেঁয়াজ এবং রসুনের সংস্পর্শে আসতে না দেওয়াই ভালো। দুর্গাকে ঘরে তৈরি দুধের মিষ্টি নিবেদন করার চেষ্টা করুন।

Related Articles

Back to top button