সব খবর সবার আগে।

করোনা রোগীদের হঠাৎ হৃদরোগে মৃত্যু! বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন কারণ

চলতি বছরের করোনা রোগীদের মধ্যে বেশ কিছু রোগ ভর্তি অসুস্থতা দেখা দিয়েছে যা তাদের মৃত্যু পর্যন্ত ডেকে এনেছে। এরকম একটি অসুস্থতা হলো হৃদরোগ। অনেক সময়ই দেখা যাচ্ছে করোনা থেকে সেরে ওঠার পরেও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হচ্ছে রোগীর। এরকমটা কেন হচ্ছে তা এবার বিশদে জানালেন বিশেষজ্ঞরা।

বর্তমানে পরিসংখ্যান বলছে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে যারা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তাদের ১৪ থেকে ২৮ শতাংশ ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিসে ভুগছেন। ২ থেকে ৫ শতাংশের শরীরে আর্টেরিয়াল থ্রম্বোসিসও দেখা যাচ্ছে। অর্থাৎ শরীরে রক্ত জমাট বেঁধে যাচ্ছে তাদের।

এই রক্ত জমাট বাঁধার কারণেই মৃত্যু ঘটছে সেরে ওঠা করোনা রোগীদের।জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ অনির্বাণ দলুই জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমণের কারণে রক্ত জমাট বাঁধার প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হয়।শরীরের যেকোনো জায়গাতেই জমাট বেঁধে যেতে পারে রক্ত। এই রক্ত জমাট বাঁধা থেকেই হৃদরোগ, ফুসফুসে রক্ত সরবরাহ বন্ধ ইত্যাদি হচ্ছে।ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিসের মাধ্যমে পায়ের মধ্যে থ্রম্বাস জমা হতে পারে। সেখান থেকেও হার্ট বা ব্রেইন অ্যাটাকের সম্ভাবনা দেখা যায়।

কিন্তু এই রক্ত জমাট বাঁধছে কেন? বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন করোনা ভাইরাস শরীরে ঢোকার পর খুব দ্রুত নিজের বিস্তার‌ ঘটিয়ে ফেলছে। আর তখন তাকে আটকানোর জন্য শরীরের মধ্যে অনেক ইনফ্লেমেটরি মার্কার বেড়ে ওঠে। এই মার্কার হঠাৎ করেই এত পরিমাণে বেড়ে যাচ্ছে যা করোনাকে রুখে দেওয়ার পরেও শরীরের অন্যান্য অঙ্গে হানা দিচ্ছে। অর্থাৎ রক্ষকই এখানে ভক্ষকের কাজ করছে। এর ফলে রক্ত জমাট বেঁধে যাচ্ছে।

তবে ভয়ের কোনও কারণ নেই, চিকিৎসকরা ডি-ডাইমার পরীক্ষার মাধ্যমে এই বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে সঠিক ওষুধ করোনা আক্রান্তের হাতে তুলে দিচ্ছেন। এর ফলে সুস্থ হয়ে উঠছেন রোগীরা।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...