সব খবর সবার আগে।

রাতে ভাত খেতে ভালবাসেন? অচিরেই বিপদ আসছে না তো? জেনে নিন বিশেষজ্ঞদের থেকে!

দুপুরে সাধারণত বেশি খেলেও রাতের বেলা (Dinner) অনেকেই আমরা হালকা খাই। তবে আমাদের মধ্যে কেউ ভাত (Rice) খেতে বেশি পছন্দ করি রাতে, আবার কারোর চার-পাঁচটা রুটি (Roti) হলেই চলে যায়। যদিও ভাতের প্রতি অতিরিক্ত ভালোবাসার কারণে আমাদেরকে ভেতো বাঙালিও বলা হয়। বাঙালিদের অধিকাংশই রাতে ভাত খান। তবে বর্তমানের স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেক বাঙালি রুটির দিকে ঝুঁকেছেন। ভাত না রুটি কোনটা রাতে খাওয়া ঠিক জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা (Experts)।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন রাতে ভাত অথবা রুটি কোনটাই বেশি খাওয়া উচিত নয় কারণ এই দুটিতেই অনেকটাই কার্বোহাইড্রেট থাকে যাকে শরীরের পক্ষে গ্রহণ করা ভালো নয়।

কেন রাতে ভাত বেশি খাবেন না?
বিশেষজ্ঞদের কথায়, এক প্লেট ভাতে (গড়ে ৮০ গ্রাম) মোট ২৭২ ক্যালোরি থাকে। এদিকে সন্ধ্যার পর আমাদের কার্বোহাইড্রেট এড়িয়ে চলা উচিত। বিশেষ করে আমরা যারা হাই সুগার বা ওবেসিটির রোগী। ঘুমোনোর আগে বেশি পরিমাণে শরীরে কার্বোহাইড্রেট গেলে গ্রোথ হরমোন এবং টেস্টোস্টেরন নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। রাতে বেশি ভাত খেয়ে ফেললে ডায়াবেটিস ও ওবেসিটির ঝুঁকি বাড়ে। এছাড়াও ভাতে ফাইবার কম থাকায় হজম করতেও সমস্যা হয়।

রাতে কেন বেশি রুটি নয়?
আটা হোক কিংবা ময়দা, যে কোন প্রকার রুটিতে কার্বোহাইড্রেট থাকবে। ২০ থেকে ২৫ গ্রাম আটা দিয়ে তৈরি একটি রুটিতে ৭০ ক্যালোরি থাকে আর এক টুকরো রুটিতে থাকে ১৫ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট।

বিশেষজ্ঞদের ধারণায়, দৈনিক পুষ্টির মধ্যে আমাদের মাত্র ৪৫ শতাংশ থেকে ৬৫% কার্বোহাইড্রেট (Carbohydrates) গ্রহণ করা উচিত। তাই আপনি ভাত বা রুটি দুটোই সামঞ্জস্য রেখে রাতে খেতে পারেন তবে কোনটাই বেশি পরিমাণে খাওয়া চলবে না।

Leave a Comment