সব খবর সবার আগে।

টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে রক্ষা পেতে চান? করোনার টিকা নেওয়ার আগে ও পরে খান এই খাবারগুলো

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মারাত্মক হারে দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। চারিদিকে হাহাকার। কোথাও বেডের সমস্যা, অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হচ্ছে হাজার হাজার মানুষের। এই পরিস্থিতিতে টিকাকরণ সবথেকে বেশি জরুরি হয়ে পড়েছে। পয়লা মে থেকে শুরু হয়েছে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের টিকাকরণ।

তবে অনেকেরই দেখা যাচ্ছে টিকা নেওয়ার পরে বেশ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। সহজ কিছু খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমেই এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াকে রোধ করা সম্ভব। বিশেষজ্ঞদের মতে, সঠিক ও পুষ্টিকর খাবার খেলে টিকা নেওয়ার পরের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াকে সহজেই আটকানো যায়। তবে মদ্যপান, ধূমপান, ও খালি পেটে টিকা নিতে যাওয়া, এই বিষয়গুলি এড়িয়ে চলাই ভালো। দেখে নিন, কী কী খাবার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া এড়ানোর জন্য উপযোগী-

রসুনঃ রসুন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। এছাড়াও রসুন দেহের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন কার্যকলাপ সঠিক ভাবে সম্পন্ন হতে সাহায্য করে।

সবুজ সবজিঃ আমাদের রোজকার খাবারে সবজি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সবুজ সবজিতে থাকে প্রচুর পরিমাণ পুষ্টিকর উপাদান ও খনিজ পদার্থ। সবজিতে থাকে ক্যালসিয়াম। তাই নিয়মিত অবশ্যই খাওয়া উচিত।

চিকেন/ভেজিটেবল স্যুপঃ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য শরীরের প্রতি যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। এর জন্য খেতে পারেন চিকেন বা ভেজিটেবল স্যুপ।

আদাঃ আদা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। আদা হাইপারটেনশন, করোনারি অসুখ, ফুসফুসের সংক্রমণের মতো রোগ নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়াও আদা স্ট্রেস কমায়। স্ট্রেস কম থাকা টিকা নেওয়ার আগে জরুরি।

হলুদঃ হলুদে কারকুমিন নামক একধরণের পদার্থ থাকে যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। হলুদ মস্তিষ্কে চাপের মাত্রা কমাতেও সাহায্য করে, যা টিকা নেওয়ার আগে জরুরি। বিভিন্ন রান্নার পাশাপাশি দুধের সাথে মিশিয়েও হলুদ খেতে পারেন।

ফলঃ ফলে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার, ভিটামিন ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। এই সমস্ত জিনিস আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলার জন্য বিশেষ উপযোগী।

ব্রকলিঃ ব্রকলি শরীরের কোলেস্টেরল মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। এর ফলে কর্ডিও ভাসকুলার রোগের সম্ভাবনা কমে। ব্রকলি রান্না করে বা সেদ্ধ ব্রকলিও খাওয়া যেতে পারে।

ডার্ক চকলেটঃ ডার্ক চকলেট এমনিতে এনার্জি দেওয়ার পক্ষে বেশ উপকারী। এছাড়াও, গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ডার্ক চকলেট করোনারি রোগের প্রবণতা কমায়। তাই টিকা নেওয়ার পর ডার্ক চকলেট খাওয়া যেতে পারে।

ভার্জিন অলিভ অয়েলঃ ভার্জিন অলিভ অয়েল স্নায়ু সংক্রান্ত রোগ ও ডায়াবেটিস প্রতিরোধে বিশেষ উপযোগী।

You might also like
Comments
Loading...