বাংলাদেশ

কুমিল্লার ঘটনার মূল অভিযুক্তকে শনাক্ত করা হয়েছে, দ্রুতই গ্রেফতার করা হবে, জানালেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কুমিল্লার হামলার মূল যে অভিযুক্ত তাকে শনাক্ত করা গিয়েছে। দ্রুতই তাকে গ্রেফতার করা হবে বলে জানালেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি জানান যে ওই ব্যক্তি এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তবে শীঘ্রই তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। আজ দুপুরে র‍্যাব-এর সদর দফতরের এক অনুষ্ঠানে একথা জানান আসাদুজ্জামান খান কামাল।

এদিকে ফেসবুক সহ নানান সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে নানান আপত্তিকর পোস্ট নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিছে বাংলাদেশ সরকার। আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান যে রংপুর থেকে এক অল্প বয়সি যুবককে ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট করার জনব্য গ্রেফতার করা হয়েছে।

শুধু রংপুরেই নয়। এই ভুয়ো, আপত্তিজনক পোস্ট বাংলাদেশের নানান জায়গাতেই দেখা যাচ্ছে। এর উপর কড়া নজর রাখছে বাংলাদেশ প্রশাসন। বাংলাদেশ পুলিশের কাছে খবর রয়েছে যে রামু, নাসিরনগর, ভোলা সহ বেশ কিছু এলাকায় ফেসবুকে ভুয়ো তথ্য এবং অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমের কর্মীদের কাছেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনুরোধ করেন যাতে, ফেসবুকে এই ধরনের কোনও সংবেদনশীল তথ্য পাওয়ার পর, তার সত্য়তা যাচাই করা হয়।

এই ধরনের অপপ্রচারকারীদের উদ্দেশে কড়া বার্তা দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। হুঁশিয়ারির সুরে তিনি বলেন, “যাঁরা এই ধরনের অপপ্রচার চালিয়ে ফায়দা তোলার চেষ্টা করছে, তাদের অবশ্যই খুঁজে বের করা হবে। কেন তারা এই কাণ্ড করছে, তার জবাব দিতেই হবে। তাদের খুঁজে বের করে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়ার ব্যবস্থা করবে পুলিশ প্রশাসন। কেন শান্তি ও সম্প্রীতির বাতাবরণ নষ্ট করার চেষ্টা চলছে, তার জবাব তাদের দিতেই হবে”।

আজ, মঙ্গলবার ঢাকায় মন্ত্রিসভার বৈঠকে সেদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানকে কড়া এই হিংসার ঘটনায় কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

এদিনের মন্ত্রিসভার বৈঠকের শেষে মন্ত্রীপরিষদের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান যে এই তাণ্ডবের সূত্রপাত কারা করেছে, তা দ্রুত খুঁজে বের করার নির্দেশ দিয়েছেন শেখ হাসিনা। তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

এর পাশাপাশি বাংলাদেশের নাগরিকদের সম্প্রীতির পরিবেশ বজায় রাখার অনুরোধও করেছেন তিনি। কুমিল্লার ঘটনার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় নানান খবর ছড়াচ্ছে। সত্যতা যাচাই না করে সেসব খবর বিশ্বাস না করার অনুরোধ জানিয়েছেন শেখ হাসিনা।

Related Articles

Back to top button