সব খবর সবার আগে।

এবার ‘ফেয়ার’ নয়, নতুন নামে বাজারে আসবে ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি’, চমকপ্রদ সিদ্ধান্ত হিন্দুস্তান ইউনিলিভারের

ভারতে এই ক্রিম জীবনে একবারও মাখেননি খুব কম মহিলাই আছেন। নিজের মুখ ‘ফর্সা’ করার জন্য এই ক্রিম এর অবদান ভারতে অবিস্মরণীয়। কিন্তু এবার ক্রিমের নাম থেকে ফর্সা ভাবটাই সরে যাচ্ছে। ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি থেকে বিদায় নিচ্ছে ‘ফেয়ার’। এবার নতুন নামে বাজারে আসবে এই ক্রিম। সম্প্রতি এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এরকমটাই জানিয়েছে প্রস্তুতকারক সংস্থা হিন্দুস্তান ইউনিলিভার।

বেশ কয়েকদিন আগে আমেরিকায় শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসারের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার ঘটনায় উত্তাল হয়েছিল গোটা বিশ্ব। ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার হ্যাশট্যাগ দিয়ে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে ফের একবার পথে নেমেছিল গোটা পৃথিবী। এই বিক্ষোভের জের সবার আগে পড়ে ফেয়ারনেস ক্রিম গুলোর উপর। সম্প্রতি আরেকজন কৃষ্ণাঙ্গ কে এরকম ভাবেই শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অত্যাচার করে হত্যা করেছে তার ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে। যদিও জানা যাচ্ছে ঘটনাটি গত ২১ এপ্রিলের। অ্যারিজোনায় কার্লোস ইনগ্রাম লোপেজ নামে ওই যুবককে শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসার শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এই নিয়ে আবার নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

ইতিমধ্যেই জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড ঘটনার জেরে জনসন অ্যান্ড জনসন কোনও ফেয়ারনেস ক্রিম তৈরি করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। এবার বিক্ষোভের মুখে পড়ে হিন্দুস্তান ইউনিলিভার থেকে জানানো হল যে তারা ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি নামে তাদের যে ‘জনপ্রিয়’ ফেয়ারনেস ক্রিম রয়েছে সেখান থেকে ফেয়ার কথাটি তারা সরিয়ে দিতে চলেছেন এবং পরবর্তীকালে নতুন একটি নামে এই ক্রিমটি বাজারে আসবে।

হিন্দুস্তান ইউনিলিভারের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর সঞ্জীব মেহতা জানিয়েছেন সৌন্দর্যকে আরও বিভিন্ন ক্ষেত্রে ছড়িয়ে দিতে চান। সেই জন্যেই এরকম একটি পদক্ষেপ তারা নিতে চলেছেন। তারা সমস্ত ধরনের স্কিন টাইপকেই উদযাপন করতে চান। ২০১৯ সালে তারা এই সংক্রান্ত কিছু পরীক্ষামূলক পদক্ষেপ নেন এবং তা তাদের গ্রাহকদের কাছে সাদরে গৃহীত হয়। তাই ফেয়ার অ্যান্ড লাভলির এই পরিবর্তনকে গ্রাহকরা আপন করে নেবে বলেই বিশ্বাস হিন্দুস্তান ইউনিলিভার কর্তৃপক্ষের।

Leave a Comment