ভাইরাল

৩০০ কেজি ওজনের মাছ, বয়স ১০০ বছর, মাছ দেখেই চমকে উঠলেন নেটিজেনরা

বাঙালি মানেই যেন ভাতে-মাছে বাঙালি। মাছের কোনও পদ থাকলে আর বাঙালিকে পায় কে! কিন্তু যদি এমন হয় যে মাছটি আপনি পেলেন সেই মাছটির ওজন ৩০০ কেজি  আর বয়স ১০০ বছর। তাহলে ব্যাপারটা কেমন হবে বলুন তো?

সোশ্যাল মিডিয়ায় তো নানান সময় নানান ধরণের ভিডিও ভাইরাল হয়। কিছু ভিডিও মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। কিছু ভিডিও দেখে আমরা মজা পাই, তো আবার কোনও ভিডিও আমাদের বেশ অবাক করে দেয়। দুনিয়ার কত জায়গায় যে কত জিনিস লুকিয়ে থাকে, তা এই সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে জানা যায়। এবার সেরকমই একটি ভিডিও বেশ ভাইরাল হল যা সকলকে রীতিমতো চমকে দিয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে যে কানাডার একটি নদীতে একটি বিশালাকৃতির একটি মাছ ধরা পড়েছে। এই মাছটি প্রায় ১১ ফুট লম্বা এবং ওজনে ৩০০ কেজি। এমন দৈত্যাকার মাছ দেখেই রীতিমত ঘাবড়ে গিয়েছেন সকলে। জানা গিয়েছে, এই মাছটির নাম হল Sturgeon। এই মাছটি জীবন্ত ডাইনোসর নামেও অধিক পরিচিত।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি আসলে কানাডার ফ্রেজার রিভারের। সেখানে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার ইয়েভেস বিসন এবং অ্যাঙ্গলার ড্যান লালিয়ার মাছ ধরতে গিয়েছিলেন। সেখানেই তাঁরা একটি বিশাল মাছকে জলে দেখতে পান। এই বিশালাকৃতির মাছ দেখে চমকে উঠেছিলেন তারাও।

বিরল এই মাছটিকে জীবন্ত ডাইনোসর বলা হয় কারণ এই মাছটি জুরাসিক যুগের। প্রাচীন কাল থেকেই একইভাবে থেকে গিয়েছে মাছগুলি। এই প্রসঙ্গে ড্যান লালিয়ার ও ইয়ভেস বিসন জানান যে এই মাছের নাম স্টারজিয়ন। এই মাছ হল বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী স্বাদু জলের মাছ যে মাছটি ধরা পড়েছে, সেই মাছটির বয়স ৭০ থেকে ১০০ বছর।

এই ভিডিওটি পোস্ট করা হয় টিকটক-এ। এই ভিডিওতে ইতিমধ্যেই লক্ষ লক্ষ ভিউ হয়েছে। ভিডিওটির শেষে এও জানানো হয় যে এই মাছটিকে ধরার পরফের নদীতে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এই ভিডিওতে নানান মানুষ নানান ধরণের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button