ভাইরাল

‘ট্রেন জ্বালিয়ে দেওয়ার থেকে তো অনেক গুণে ভালো’, স্টেশনে ট্রেন থামিয়ে পুজো, ভিডিও দেখে আপ্লুত নেটিজেনরা

আজকালকার দিনে সোশ্যাল মিডিয়া যুগে কত কিছুই আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়। কিছু ঘটনা আমরা এড়িয়ে যাই, আবার কিছু ঘটনা আমাদের মধ্যে বেশ ছাপ ফেলে যায়। কিছু কিছু এমন ভিডিও আমরা দেখি যা আমাদের আনন্দ দেওয়ার পাশাপাশি আবার বেশ আবেগপ্রবণও করে তোলে।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হল যা দেখে নেটিজেনরা হতবাক হওয়ার পাশাপাশি বেশ আনন্দও পেয়েছেন বলা যায়। ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে এক স্টেশনে কিছু মানুষ ট্রেন থামিয়ে সেই ট্রেনকে পুজো করছেন।

হ্যাঁ, ঠিকই পড়ছেন। ট্রেন পুজো। বারাসাত-হাসনাবাদ লাইনের একটি স্টেশনে ঘটল এমনই ঘটনা। দেখা যাচ্ছে, করিয়া কদম্বগাছি নামের একটি স্টেশনে ট্রেন ঢুকছে। আর সেই সময় কয়েকজন লোক ট্রেনটিকে থামিয়ে পুজো করতে শুরু করেন। এই ঘটনা দেখে অনেকেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন।

কেউ কেউ এই ভিডিও দেখে লিখেছেন, “আমাদের সনাতন ধর্ম যেখানে জড় জীব সব কিছুই আমরা ঈশ্বর জ্ঞানে পূজো করি অকারনে আতঙ্ক ছড়িয়ে আগুন লাগিয়ে ক্ষমতা আমরা জাহির করি না”। আবার কারোর মতে, “ ট্রেন জ্বালানো বা ট্রেন পোড়ানোর থেকে ট্রেনের প্রতি ভালবাসা দেখিয়ে প্রত্যেকটা স্টেশনে যদি এরকম করা হয় তাহলে এর স্টেশন ও ট্রেনগুলো অনেক পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকবে”।

অনেকেই মনে করেছেন যে এই ট্রেন লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে রুটি-রোজগার যোগায়। তাই ট্রেনকে পুজো করার মধ্যে কোনও খারাপ কিছু তো নেই। আর বিশ্বকর্মা পুজোর দিন তো আমরা নানান মেশিনেই পুজো করি, তাহলে ট্রেন পুজো করতে দোষের কী! এই ট্রেনের উপর নির্ভর করেই প্রত্যেকদিন কত কত মানুষ জীবন নির্বাহ করে চলেছেন।

অনেকেই এই কাজকে কটাক্ষ করলে তাদের আবার পাল্টা কটাক্ষও করেছেন অনেকেই। কেউ লিখেছেন, “ট্রেন পুজো করা নিয়ে তাদেরই সমস্যা হচ্ছে এবং হবে যাদের ট্রেন জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দেওয়াতে কোন সমস্যা নেই। এই অকাট গণ্ডমূর্খদেরকে পুজো নিয়ে কেউ অপিনিয়নও দিতে বলেনি। ট্রেন পুজো এদের কাছে দৃষ্টিকটু কিন্তু রাস্তা আটকে বসে পড়া নিয়ে এদেরকে কথা বলতে দেখা যায় না”।

Related Articles

Back to top button