সব খবর সবার আগে।

এ এক অন্য দৃশ্য! পর্যটকহীন তাজপুরের সমুদ্রসৈকতে থিকথিক করছে লাল কাঁকড়া

আমাদের চারপাশের পরিবেশেই এমন অনেক সৌন্দর্য থাকে, তা আমরা উপলব্ধিই করি না। আর এই কারণে তা আমাদের নজরেও পড়ে না। প্রকৃতি নিনের সৌন্দর্যের ঢালি নিয়ে আমাদের নানান জিনিস উপহার দেয় ঠিকই, কিন্তু নিজেদের আচরণের কারণেই আমরা তা উপভোগ করে উঠতে পারি না।

গোটা দেশে এখন মহামারীর জেরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ করোনা ভাইরাসের জেরে প্রাণ হারাচ্ছেন। এরিন মধ্যে উঁকি দিয়েছে নতুন বিপদ। ঘূর্ণিঝড়। যশ। আগামী বুধবার তা আছড়ে পড়বে পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশার উপকূলে।

গত বছরের আমফানের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের একটা ঝড়। এর জেরে পশ্চিমবঙ্গের নানান উপকূলবর্তী এলাকা খালি করা হয়েছে। এমনিও রাজ্যে লকডাউনের কারণে দিঘা, মন্দারমনি, তাজপুরে পর্যটক নেই। তবে এই অঞ্চলে উপকূল এলাকার বাসিন্দাতেও অন্যত্র সরিয়ে ফেলা হয়েছে। অর্থাৎ সম্পূর্ণ শূন্য সমুদ্রসৈকত।

আরও পড়ুন- কোথায় করোনা বিধি? সমস্ত নিষেধ ভেঙে বিমানের মধ্যে ১৬১ জন অতিথির উপস্থিতিতে বিয়ে সারলেন দম্পতি

এই খালি সমুদ্রসৈকত এখন হয়ে উঠেছে সামুদ্রিক প্রাণীর আস্তানা। সকলেরই জানা যে তাজুপুরের সমুদ্রসৈকতে ছোটো ছোটো লাল কাঁকড়া খুব বিখ্যাত। এই লাল কাঁকড়া দেখার জন্যই মানুষ ভিড় জমায় এই তাজপুরে। এবার সমুদ্র সৈকতে কোনও জনপ্রাণী না থাকার কারণে সমুদ্র সৈকতে উঠে এসেছে শ’য়ে শ’য়ে লাল কাঁকড়া।

তাজপুরের সমুদ্রসৈকতে থিকথিক করছে এই লাল কাঁকড়া। কিছু বছর আগে খবর মেলে যে তাজপুরের এই লাল কাঁকড়ার অস্তিত্ব বিপন্ন। বিপুল সংখ্যক পর্যটকদের আনাগোনার কারণে সমুদ্রতটে থাকতে পারে না এই লাল কাঁকড়া।

এই কারণে তাদের বাঁচানোর জন্য নানান উদ্যোগও নেওয়া হয়। সমুদ্রসৈকতে কোনও যান চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এমনকি, স্বেচ্ছাসেবক দলও গঠন করা হয় তদারকি করার জন্য যে এই আইন ঠিকঠাক মেনে চলা হচ্ছে কী না। তবে এই জনমানবহীন তাজপুরের সমুদ্র সৈকতে এই লাল কাঁকড়ার ভিডিও এখন বেশ ভাইরাল।

You might also like
Comments
Loading...