ভাইরাল

শিক্ষকতার বেতন মাত্র ১৫০০ টাকা, বি.এড করা থাকলে অগ্রাধিকার, বীরভূমের স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেখে শোরগোল নেটপাড়ায়

বাংলায় বেকারত্ব দিনদিন বেড়েই চলেছে, এ অভিযোগ বিরোধীদের দীর্ঘদিনের। একে তো করোনা পরিস্থিতির জেরে দু’বছর ধরে রাজ্যের টালমাটাল অবস্থা। আর অন্যদিকে, শিক্ষক নিয়োগে নানান দুর্নীতির ঘটনা।

এর জেরে বাংলার ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যৎ আদৌ কোনদিকে এগোবে, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। আর এরই মাঝে ভাইরাল হল একটি স্কুলে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি যা দেখে কার্যত শোরগোল পড়ে গিয়েছে গোটা সোশ্যাল মিডিয়ায়। চাকরিপ্রার্থীদের চোখ কপালে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি বেশ ভাইরাল হয়েছে। এই ছবি বীরভূমের সাঁইথিয়ার জিউই তরঙ্গিনী উচ্চবিদ্যালয়ের একটি লেটারপ্যাডের। সেই লেটারপ্যাডে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে আর এই বিজ্ঞপ্তিতে লেখা, বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জরুরি ভিত্তিতে ভূগোল ও শিক্ষাবিজ্ঞান বিভাগে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ হবে। দুটো পদই সাম্মানিক স্নাতকদের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে। শুধু তাই নয় বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত হয়েছে সাম্মানিকও। মাত্র ১৫০০ টাকা।

এই বিজ্ঞপ্তিতে সাম্মানিকের অঙ্কটিতে মাত্র কথাটি উল্লেখ করা হয়েছে। অর্থাৎ যিনি এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন, তিনি নিজেও জানেন যে এটি আসলে বেনিয়ম। একজন স্নাতক স্তরের শিক্ষকের স্কুলের বেতন যে ১৫০০ টাকা হতে পারে না, তা আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন পড়ে না।

এই বিজ্ঞপ্তিতে আরও লেখা রয়েছে যে আগামী ২৭শে জুনের মধ্যে ইচ্ছুক প্রার্থীরা এই পদের জন্য আবেদন করতে পারেন। এরপরই স্কুলের তরফে মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। এও জানানো হয়েছে যে যাদের বি.এড করা থাকবে, তারা এই চাকরিতে অগ্রাধিকার পাবেন। এর এই বিজ্ঞপ্তির নীচে প্রধান শিক্ষক হিসেবে জ্যোতির্ময় মণ্ডলের স্বাক্ষর রয়েছে।

এই বিজ্ঞপ্তি দেখলেই যেন বাংলার বেকারত্বের ছবিটা আরও স্পষ্ট হয়ে যায়। এই বিজ্ঞপ্তি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ হইচই পড়ে গিয়েছে। ভাইরাল হয়েছে এই বিজ্ঞপ্তির ছবি। চাকরি নিয়োগে এমন বিজ্ঞপ্তি দেখে বেকারত্ব নিয়ে ফের প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা। তবে এই বিজ্ঞপ্তির সত্যতা যাচাই করেন নি খবর ২৪x৭।

Related Articles

Back to top button