ভাইরাল

‘এটা আমার শেষ ভিডিও, আমি বাঁচতে চাই না’ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট বাংলার জনপ্রিয় ইউটিউবারের, দেখে চমকে উঠলেন নেটিজেনরা

আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় আত্মহত্যার হুমকি বাংলার জনপ্রিয় ইউটিউবারের। এর আগেও পোস্ট করে আত্মহত্যার ইঙ্গিত দিয়েছেন অনেকজন। কিন্তু বাংলার ইউটিউবার ঐশ্বর্য মুখোপাধ্যায়ের গতকাল রাতের পোস্ট ঘিরে উদিগ্ন নেটিজেনরা। প্রশ্ন উঠেছে, কী এমন হ’ল যাতে ঐশ্বর্য এমন পোস্ট করতে বাধ্য হলেন?

জানা যাচ্ছে, কিছুদিন ধরে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন তিনি। আঠার বছর বয়সি ইউটিউবার কটূক্তির স্বীকার হয়েছেন। তার ভিডিও-র কমেন্টে, তার কোনও ট্যালেন্ট নেই, কন্টেন্ট ভালো নয় বলে কেউ বা কারা লিখছেন। যার ফলেই মানসিক অবসাদে ভুগছেন ইউটিউবার।

ঐশ্বর্য মুখোপাধ্যায়ের দিদি জেফার এবং জামাইবাবু প্রীতম দু’জনেই জনপ্রিয় ইউটিউবার। তারা ঐশ্বর্যের পাশে আছেন। ঐশ্বর্য গতকাল রাতে ভিডিও করে জানিয়েছেন, ‘আমি দেড় বছর ধরে খেটে ভিডিও বানাই। কোনও আর্থিক সাহায্য ছাড়াই। আমি কাউকে ছোট করে উঠিনি। আমার বারবার ফোন আসছে। আমাকে দেখে লোকে হাসছে। আমাকে ঠেস দিয়ে কথা বলছে। আমি যে বিগ জিরো সেটা কমেন্ট বক্সে সবাই ভরিয়ে দিচ্ছে।’

আরও অনেক কিছুই তিনি জানিয়েছেন পোস্টে। এমনকি তাকে তার জামাইবাবু ও দিদির নামেও কথা শোনানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, দিদি জামাইবাবুর জন্যই সে এতো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

দিদি জেফার সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘দীর্ঘ তিন মাস ধরে ফালতু ব্লগার নামের একটি টিমের মেম্বাররা এসব করছেন। পুলিশের কাছে এফআইআর করা হয়েছে, বাকি আইনের পথে হাঁটবো’ তবে জানা যাচ্ছে, ঐশ্বর্যকে নিয়ে তারা নানা রকমের ভিডিও বানিয়েছে।

Related Articles

Back to top button