সব খবর সবার আগে।

করোনার ওষুধের তালিকায় সামিল নতুন ওষুধ, ছোট থেকে বড়ো চিকিৎসাধীন রোগীকে দেওয়া হবে এই ওষুধ

বিশ্ব জুড়ে এখন রাজ করছে মারণ করোনা ভাইরাস। যার প্রকোপে মারা যাচ্ছেন প্রায় লক্ষাধিক মানুষ। ভারতেও এর সংখ্যা নেহাতই কম কিছু নয়। সারা পৃথিবী হাঁপিয়ে উঠেছে এই ভাইরাসের সাথে লড়তে লড়তে ৷ কিন্তু মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে মোকাবিলার জন্য এখনো কোনো সুনির্দিষ্ট ভ্যাকসিন পাওয়া যায়নি। এমনকি বিকল্প ওষুধের পরীক্ষামূলক প্ৰয়োগের মাধ্যমেই চলছে চিকিৎসা। তবে কিছু ক্ষেত্রে কয়েকটি ওষুধ কাজ করছে ৷ তাদের মধ্যে একটি নাম হল রেমডিসিভর(Remdesivir) ৷ এই ওষুধটি মার্কিন কোম্পানি গিলিয়ড সায়েন্সেসের তৈরি ৷ এবার ভারতও এই ওষুধের ব্যবহারের অনুমতি পেল।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী ভারতের ঔষধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা সেন্ট্রাল ড্রাগ স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন (CDCSCO) রেমডিসিভার ওষুধ ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে ৷এই ওষুধ মারণ করোনার মোকাবিলার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে। তবে যে সব রোগীরা হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাদেরই এই ওষুধ দেওয়া যাবে ৷ ছোট হোক কিংবা বয়স্ক সবাইকেই করোনার এই ওষুধ দেওয়া যাবে ৷ এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্ত রোগীদের ৫ দিনের জন্য এই ওষুধ দেওয়া যাবে ৷

কিছুদিন আগে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির পর বিকল্প ওষুধের জন্য চিন্তায় পড়েন স্বাস্থ্যকর্মী থেকে রোগী সকলেই। এবার রেমডিসিভর এর দিকে তাকিয়ে গোটা বিশ্ব। বিভিন্ন দেশে এই অ্যান্টি ভাইরাল ড্রাগের পরীক্ষামূলক ব্যবহার চলছে ৷ এই ওষুধের তৃতীয় ধাপে যে পরীক্ষা চলছে ,তাতে ১১ দিন এই ওষুধ প্রয়োগের পর ৬৫ শতাংশ রোগীর ক্ষেত্রে ইতিবাচক ফলাফল লক্ষ্য করা গেছে ৷

গত মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরামর্শদাতা জানিয়েছিলেন এই ওষুধ করোনা ভাইরাসের ক্ষেত্রে ভালো কাজ করছে৷ পরিসংখ্যান অনুযায়ী এই ওষুধ করোনা রোগীদের সারিয়ে তোলার ক্ষেত্রে বেশ উপকারী। তাঁর মতে এই ওষুধ আমেরিকা, ইউরোপ, এশিয়ার ৬৮ টি জায়গায় মোট ১০৬৩ জন লোকের ওপর প্রয়োগ করা হয়েছে ৷ তাতে এই মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে আশাতীত সাফল্য দেখা গেছে।

অন্যদিকে জাপানেও রেমডিসিভর ওষুধের ব্যবহার ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে ৷ গত মাসে জাপানকে এই ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে ৷ অনুমতি পাওয়ার তিন দিনের মধ্যে জাপান এই ওষুধ ব্যবহার শুরু করে দেয়৷

You might also like
Leave a Comment