সব খবর সবার আগে।

Covid-19: করোনা সঙ্কটে ভারতের পাশে ভুটান! প্রতিদিন ৪০ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন সরবরাহ করবে এই পড়শি দেশ

ভারতজুড়ে বেলাগাম করোনাভাইরাস। কোন‌ও ভাবেই তাকে নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। মানুষের প্রাণ বাঁচানোর জন্য মিলছে না পর্যাপ্ত অক্সিজেন টুকুও। দিল্লি, মহারাষ্ট্র তো কার্যত মৃত্যু নগরীতে পরিণত হয়েছে। দাহ করার জন্য পর্যাপ্ত কাঠ টুকুর‌ও অমিল।

অক্সিজেনের অভাবে ইতিমধ্যেই বহু করোনা আক্রান্ত রোগীদের মৃত্যুও হয়েছে। লাগামছাড়া সংক্রমণের জেরে বেড়েই চলেছে সংক্রমিত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এরই মধ্যে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে আমেরিকাও। এগিয়ে এসেছে সৌদি আরব, পাকিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, ব্রিটেন, ফ্রান্স সহ একাধিক দেশ।

আরও পড়ুন-Covid-19: করোনা বিধ্বস্ত ভারত! ১৩৫ কোটি টাকা অনুদান ঘোষণা সুন্দর পিচাইয়ের, পাশে মাইক্রোসফটও

এবার ভারতের বিপর্যয়ে এগিয়ে এলো ভারতের পড়শি দেশ ভুটান‌ও। ভারতে মহামারীর পরিস্থিতির মধ্যে এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে তরল অক্সিজেন পাঠানোর ঘেষণা করল ভুটান সরকার। ভারতের দূতাবাসকে উদ্দেশ্য করে লেখা ওই বিজ্ঞপ্তিতে ভুটান সরকার জানিয়েছে, যে তাঁরা অসমের সীমান্তবর্তী এলাকা সমদ্রুপ জোঙখড় জেলায় তাঁদের নয়া অক্সিজেন তৈরির কারখানা থেকে প্রতিদিন ৪০ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন সরবরাহ করবে।

জানা গেছে সেই তরল অক্সিজেন ট্যাঙ্কারে ভরে পাঠানো হবে। ভারতের এই কঠিন সময়ে একত্রে করোনার সঙ্গে লড়তে ভারতের পাশেই থাকবে ভুটান বলে জানানো হয়েছে। এছাড়াও করোনাকে জয় করার পাশাপাশি অমূল্য জীবন রক্ষা করার জন্য সবসময় ভারতের পাশেই থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ভুটান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান বলছে, এই মুহূর্তে দেশে মোট অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ২৮ লক্ষ ৮২ হাজার ২০৪। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ লক্ষ ৫১ হাজার ৮২৭ জন। এ নিয়ে দেশে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৪৫ লক্ষ ৫৬ হাজার ২০৯। ইতিমধ্যে টিকাকরণ হয়েছে ১৪ কোটি ৫২ লক্ষ ৭১ হাজার ১৮৬ জনের। গত পাঁচদিন ধরে দেশের করোনা সংক্রমণের হার ক্রমশই ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছিল। তিনদিনে মধ্যেই সংক্রমিতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছিল ১০ লক্ষের গণ্ডি।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...