সব খবর সবার আগে।

করোনা টিকাকে ‘সঞ্জীবনী বুটি’ হিসেবে উল্লেখ করে ভারতকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের

ভারতে ১৬ ই জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে করোনা টিকাকরন। এরপর থেকেই বিভিন্ন দেশে করোনার টিকা রপ্তানি করছে ভারত। সেইমতোই আমেরিকার পর সর্বাধিক করোনা আক্রান্ত দেশ ব্রাজিলেও টিকা পাঠায় ভারত।

আর নরেন্দ্র মোদী সরকারের সেই দানকে ধন্যবাদ জানলেন ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো। সেখানে ভারতের পাঠানো করোনা টিকাকে ‘সঞ্জীবনী বুটি’ বলেও উল্লেখ করেছেন ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট।

এই ঘটনায় নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারত। ব্রাজিলের পাশে দাঁড়াতে পেরে ভারত যে ধন্য বোধ করছে তা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

শুক্রবার মুম্বই থেকে সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার (এসআইআই) কোভিশিল্ডের ২০ লাখ ডোজ নিয়ে ব্রাজিলের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় পণ্যবাহী বিমান। যে টিকা যৌথভাবে তৈরি করেছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্রিটিশ-সুইডিশ সংস্থা অ্যাস্ট্রোজেনেকা। ভারতে সেই টিকা উৎপাদন করেছে সেরাম। ব্রাজিলেও অক্সফোর্ডের টিকার ট্রায়াল চলেছে।

কোভিশিল্ড পাঠানোর জন্য মোদীকে ধন্যবাদ জানান ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো। তিনি লেখেন, ‘নমস্কার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিশ্বব্যাপী প্রতিকূলতা অতিক্রম করার জন্য দুর্দান্ত বন্ধুকে পাশে পাওয়ায় ব্রাজিল গর্ববোধ করছে। টিকা পাঠিয়ে আমাদের সাহায্য করার জন্য ধন্যবাদ।’ সেই বার্তার সঙ্গে একটি ছবিও পোস্ট করেন বোলসোনারো। তাতে দেখা যাচ্ছে, ভারত থেকে ব্রাজিলে ‘সঞ্জীবনী বুটি’ নিয়ে যাচ্ছেন হনুমান। পুরাণ কাহিনিতে উল্লেখ রয়েছে সঞ্জীবনী বুটির। ‘রামচরিতমানস’ অনুযায়ী, লক্ষ্মণ শক্তিশেলে আঘাত পাওয়ার পর হিমালয়ের দ্রোণগিরি পর্বত থেকে সঞ্জীবনী গাছের শিকড়ের সন্ধান করতে গিয়েছিলেন হনুমান। ছবিতে করোনা টিকাকে ‘সঞ্জীবনী বুটি’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট।

ব্রাজিল প্রেসিডেন্টের বার্তার প্রত্যুত্তর দেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। আজ অর্থাৎ শনিবার সকালে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে তিনি লেখেন, ‘প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো, করোনাভাইরাস মহামারীর বিরুদ্ধে হাতে হাত মিলিয়ে লড়াইয়ের জন্য ভরসাযোগ্য সহযোগী হিসেবে ব্রাজিলকে পাশে পেয়ে আমরাও গর্বিত।’

 

You might also like
Comments
Loading...