আন্তর্জাতিক

একমাত্র পাকিস্তানেই এমনটা সম্ভব! মাঝপথেই ট্রেন থামিয়ে দই কিনতে চলে গেলেন চালক, ব্যাপক ভাইরাল ভিডিও

ধরুন আপনি বাড়ি ফিরছেন। সেই সময় আপনার হঠাৎ মনে পড়ে গেল যে আপনাকে বউ বলেছে দই কিনে নিয়ে যেতে। তখন আপনি আপনার গাড়ি, বাইক বা সাইকেল থামিয়ে দোকান থেকে দই কিনে নিয়ে গেলেন।

কিন্তু আপনি যদি ট্রেনের চালক হন, তাহলে? ট্রেন থামিয়ে কী দই কিনতে যাবেন? তবে পাকিস্তানের এক ট্রেন চালক কিন্তু এমনটাই করলেন। দই কেনার জন্য তিনি রীতিমতো মাঝপথে ট্রেন থামিয়ে দিলেন। তবে তাঁকে তাঁর বউ দই কিনতে বলেছিলেন কী না, তা অবশ্য জানা যায়নি।

তবে গন্তব্যে পৌঁছনোর আগেই মাঝপথে ট্রেন থামিয়ে নেমে দই কিনলেন ট্রেনের চালক। এমন ঘটনার ভিডিও এখন নেটপাড়ায় তুমুল ভাইরাল। তবে জানা গিয়েছে, এর জেরে ওই ট্রেন চালককে বরখাস্ত করা হয়েছে। ট্রেনে তাঁর সহকারীও বরখাস্ত হয়েছেন।

ঘটনাটি ঠিক কী?

দই কেনার জন্য ওই চালক ট্রেন থামাতেই সেখান থেকে নেমে আসেন তাঁর এক সহকারী। তাঁকে দেখা যায় সামনের দোকান থেকে দই কিনতে। দই কেনার পরে তিনি ফের ট্রেনে উঠে পড়েন। সেই ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করেন এক ব্যক্তি। এই ভিডিওটি ভাইরাল হতেই বেশ বিপদে পড়েন ওই চালক।

এমনিতেই পাকিস্তানে নানা অব্যবস্থা ও অবহেলার জন্য নানান সময় দুর্ঘটনা লেগেই থাকে। তাই এই ঘটনাকে মোটেই হালকা করে নিতে রাজি নয় ইমরানের প্রশাসন।

পাক রেল মন্ত্রকের এক মুখপাত্র সইদ ইজাজ-উল-হাসান শাহ সংবাদ সংস্থা এএফপিকে গত বুধবার জানান, “আপনি মাঝপথে একটা ট্রেনকে আচমকাই থামিয়ে দিলে তা নিরাপত্তা ইস্যু হয়ে যায়। নিরাপত্তাই আমাদের কাছে অগ্রাধিকার পায়। এই নিয়ে কোনও রকম সমঝোতা আমরা করব না”।

এই বিষয়ে দেশের রেলমন্ত্রী আজম খান সাতির হুঁশিয়ারি, “ব্যক্তিগত প্রয়োজনে জাতীয় সম্পত্তি কাউকে ব্যবহার করতে দেব না”। এই ভিডিও তাঁর নজরে আসতেই বেশ নড়েচড়ে বসেন তিনি। ট্রেনটি কে চালাচ্ছিলেন, তার খোঁজ চালান তিনি। ট্রেন চালক ধরা পড়তেই তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেন রেলমন্ত্রী।

Related Articles

Back to top button