আন্তর্জাতিক

হোলি উপলক্ষ্যে ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি তুলে শুভেচ্ছা জানালেন পাক ক্রিকেটার, সাহসিকতার প্রশংসা ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের

ভারত ও পাকিস্তানের কোনও ম্যাচ থাকলে, দুই দেশের মধ্যেই টানটান উত্তেজনা লক্ষ্য করা যায়। এই দুই দেশের রীতিনীতিতে কিছু মিলও পরিলক্ষিত হয় বটে। এবার হোলি উপলক্ষ্যে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান তুলে শুভেচ্ছা জানালেন পাক ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়া। তাঁর এই সাহসিকতার প্রশংসা করলেন ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা।

পাকিস্তানের হিন্দু ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়া হিন্দু রীতির প্রত্যেক উৎসবেই সকলকে শুভেচ্ছা জানান। হোলি উপলক্ষ্যেও শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি তিনি। কানেরিয়া টুইটে লিখেছেন, “জয় শ্রী রাম। সবাইকে হোলির আন্তরিক শুভকামনা জানাচ্ছি”।

তাঁর এই টুইটের পর তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন অনেকেই। অনেকে আবার তাঁকে ভারতে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তাঁর এই সাহসিকতার প্রশংসা করেছেন সকলে। কোনও কোনও ক্রিকেটপ্রেমী আবার তাঁকে পাকিস্তানের থেকে দূরে থাকার পরামর্শও দিয়েছেন।

দানেশ কানেরিয়া একজন দুর্দান্ত পাকিস্তানি ক্রিকেটার। তাঁর বল বোঝা সকল ব্যাটসম্যানদের কম্ম নয়। ২০০০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের হয়ে টেস্ট খেলে পাক দলে অভিষেক হয় কানেরিয়ার। পাকিস্তানের হয়ে ৬১ টি টেস্ট ম্যাচে ২৬১ উইকেট এবং ১৮ টি ওয়ানডেতে ১৫ উইকেট নিয়েছেন কানেরিয়া। তবে পরিবর্তীতে ম্যাচ ফিক্সিংয়ে সঙ্গে নাম জড়ানোর ফলে দল থেকে বাদ পড়েন তিনি।

হিন্দু হওয়ার কারণে পাকিস্তানে বারবার বৈষম্যের শিকার হতে হয়েছে কানেরিয়াকে। পাক ক্রিকেট দলের আবদুল কাদির, মুস্তাক আহমেদ, সাকলাইন মুস্তাকের থেকে বেশি উইকেট নিয়েছেন কানেরিয়া। কিন্তু তা সত্ত্বেও কিংবদন্তি বোলারদের তালিকায় নাম করতে পারেন নি তিনি। একসময় পাকিস্তানকে অনেক ম্যাচে জিতিয়েছেন তিনি।

কানেরিয়া নিজেও অনেকবার বলেছেন যে তিনি হিন্দু হওয়ার কারণে নিজের সতীর্থদের কাছেই বৈষম্যের শিকার হতে হয়েছে তাঁকে। এরই মধ্যে ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি তুলে হোলির শুভেচ্ছা জানালেন তিনি।

তাঁর এই টুইটের মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। একজন কমেন্ট করে লিখেছেন, “ভারতে আসুন ভাই”। আবার অন্য এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, “পাকিস্তানে বাস করে এমন টুইট করা সাহসের ব্যাপার। আপনার উপর ঈশ্বরের করুণা বজায় থাকুক”।

Related Articles

Back to top button