আন্তর্জাতিক

হিন্দু ধর্মকে হেয় করে ফেসবুক পোস্ট! হাসিনা রাজত্বে বাংলাদেশে গ্রেফতার মুসলিম যুবক

বাংলাদেশে হিন্দুরা সংখ্যালঘু! হিন্দু অত্যাচারের ঘটনাও প্রতিবেশী দেশে হরহামেশাই ঘটে। বাদ যান না হিন্দু দেবদেবীরাও।
তবে এবার সংখ্যালঘু হিন্দুদের অত্যাচারের ঘটনায় কঠিন হল বাংলাদেশ প্রশাসন।
বিভিন্ন সময়‌ই বিরোধীরা শেখ হাসিনার সরকারের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনে মদত দেওয়ার অভিযোগ তোলে। কিন্তু, সেই অভিযোগকে মিথ্যা প্রমাণ করতে তৎপর হলো শেখ হাসিনা সরকার। হিন্দু ধর্মকে নিয়ে কটূক্তির জেরে গ্রেপ্তার হতে হল এক মুসলিম যুবককে।
এই দৃষ্টান্তমূলক ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশ -এর উত্তরপ্রান্তে অবস্থিত রংপুর জেলার তারাগঞ্জে। ধৃতের নাম মহম্মদ রমজান আলি। বয়স ২৬।
সূত্রের খবর, গত ১৬ই অক্টোবর শারদীয় দুর্গাপুজো উপলক্ষে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ছিলেন বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এই প্রসঙ্গে লিখেছিলেন, ‘দেবী দুর্গা শত্রু বধ করে পৃথিবীতে শান্তি এনেছেন।’ তাঁর এই বক্তব্যকে কটূক্তি করে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্ট করে কুর্শা ইউনিয়নের পলাশবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা রমজান আলি।
ঘটনাটি জানাজানি হতেই ওই এলাকার হিন্দুরা এই ঘটনার প্রতিবাদ করেন। স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে বিষয়টির মীমাংসা করারও চেষ্টা করেন। কিন্তু, কিছুতেই কাজ হয়নি।
বাধ্য হয়ে গত সোমবার তারাগঞ্জের পুজো উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি শেল্টু শঙ্কর রায় স্থানীয় থানায় এই বিষয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে ওইদিনই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয় বলে জানান তারাগঞ্জ থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক ইসমাইল হোসেন। পরে অভিযুক্তকে রংপুর জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

Related Articles

Back to top button