কলকাতা

নাগেরবাজারে দুই বিজেপি কর্মীকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

দমদমের নাগেরবাজার এলাকায় দুই বিজেপি কর্মীকে খুন করার চেষ্টার অভিযোগ উঠলো তৃণমূলের কিছু কর্মীদের বিরুদ্ধে। ১৩ জুলাই রাত ১১টা থেকে ১১:৩০টা নাগাদ হঠাৎই গন্ডোগোল বাঁধে দুই পক্ষের মধ্যে৷ এরপর বিজেপি কর্মীদের ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে তৃণমূল কর্মীরা চড়াও হন বলে অভিযোগ। হাতহাতিতে সেসময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ৩ জন বিজেপি কর্মী আহত হয়েছেন বলে খবর। তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আপাতত তাঁরা আরজিকর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর, নাগেরবাজারের রথের মেলায় বিজেপি কর্মীদের জলছত্র-র একটি স্টলকে কেন্দ্র করে বচসা শুরু হয়। অভিযোগ, তৃণমূল কর্মীরা সেই স্টলে ভাঙচুর চালায়। এবং তার প্রতিবাদ বিজেপি কর্মীরা করাতে, রাতে সেই বিজেপি কর্মীদের ওপর তৃণমূল কর্মীরা চড়াও হন এবং ধারালো ক্ষুর দিয়ে সেই বিজেপি কর্মীদের আঘাত করেন। যদিও আরেক পক্ষের দাবী যে, নাগেরবাজারের আর এন গুহ রোডের একটি জমির ওপর শেড দেওয়া নিয়ে ঝামেলার সূত্রপাত হয়৷

 

বিজেপির তরফে অভিযোগ যে, দলীয় কারণেই তৃণমূল কর্মীরা চড়াও হয়েছেন সেই বিজেপি কর্মীদের ওপর। যদিও শাসকদল তা মানতে নারাজ। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বরা জানান যে শুধুমাত্র ব্যক্তিগত কিছু রেষারেষি থেকে এই ঘটনা ঘটেছে, এতে রাজনীতির কোনো যোগ নেই।

গুরুতর আহত দুই বিজেপি কর্মীরা হলেন রাজা রাজবংশী এবং জয়ন্ত রাজবংশী। তাঁরা এখনও আরজিকর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দুই রাজনৈতিক দলের তরফ থেকেই অভিযোগ জানানো হয়েছে দমদম থানায়। ইতিমধ্যে এই ঘটনার তদন্তে নেমে দুই জনকে গ্রেফতারও করেছেন দমদম থানার পুলিশ। ধৃতদের নাম সুভাষ দে এবং অভিষেক রায়।

Related Articles

Back to top button