সব খবর সবার আগে।

মেডিক্যাল কলেজের মহিলা বিভাগে ঢুকে এক রোগীর গহনা চুরির চেষ্টা করতে গিয়ে ধরা পড়ল ৩ চোর

করোনা থেকে রক্ষা পেতে মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হন। কিন্তু সেখানেও আরেক বিপত্তি। করোনার আবহে মেডিক্যাল কলেজ থেকে উধাও হয়ে যাচ্ছে ফোন। কখনো অসুস্থ মানুষের ফোন চুরি যাচ্ছে কখনো আবার মৃত ব্যক্তির। এত দিন বার বার অভিযোগ ওঠার পরও কোনো প্রমাণ মেলেনি। কিন্তু এবার সেই অভিযোগ হাতে নাতে প্রমাণিত হল। এবার করোনা রোগীর গা থেকে গহনা চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ল ৩ জন স্বাস্থ্য কর্মী।

বৃহস্পতিবার PPE পরে তারা এক মহিলা করোনা রোগীর গহনা চুরির চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। ঘটনার দিন ওই লোকগুলোকে দেখে সন্দেহ হয় ওয়ার্ডের নার্সদের। এরপর তাঁদের চিৎকারে রক্ষা পায় ওই মহিলার গহনা। পরে বউবাজার থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ ৩ জন কর্মীকে আটক করে নিয়ে যান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে PPE পরে ২ জন ব্যক্তি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের সুপার স্পেশ্যালিটি বিল্ডিংয়ের মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে ঢুকে পড়ে। কিন্তু ফিমেল ওয়ার্ডে পুরুষ কর্মী কেন? সন্দেহ হয় নার্সদের। এরপর ওই ওয়ার্ডের এক করোনা সংক্রামিত রোগীকে তাঁরা খাবার দেওয়ার অছিলায় তাঁর সমস্ত গয়না সব খুলে দিতে বলে।

ওই দুই ব্যক্তির কথায় আরও সন্দেহ বাড়তে থাকে নার্সদের। এরপর নার্সরা তাদের পরিচয় এবং তারা কিভাবে মহিলা বিভাগে ঢুকল তা জিজ্ঞাসা করায় তারা ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে যায়। এরপর ধরা পড়ার ভয়ে ওয়ার্ড থেকে পালানোর চেষ্টা করে। নার্সরা পিছন পিছন গেলেও তাদের ধরতে পারেন না।

এর পর বউবাজার থানায় এই ঘটনা জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তদন্তে নেমে পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এদের মধ্যে ২ জন হাসপাতালের চুক্তিভিত্তিক চতুর্থ শ্রেণির কর্মী। আর একজন হাসপাতালের কর্মী। এর পর তিন জনকে আটক করে পুলিশ। তবে এদের বিরুদ্ধে হাসপাতাল সুপার কোনো লিখিত অভিযোগ করেননি। তবে করোনার চিকিৎসা করতে গিয়ে যদি মানুষকে চুরির চিন্তা করতে হয় তাহলে আর মানুষের সুস্থ হওয়া হবে না। তবে সম্প্রতি করোনার মধ্যে কোনো না কোনো বিষয়ে মেডিক্যাল কলেজের বদনাম শোনা যাচ্ছেই।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Leave a Comment