কলকাতা

ছাত্রীকে কোয়ার্টারে ডেকে উরু, গালে চু’ম্ব’ন, ধ’র্ষ’ণের চেষ্টা, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকের বিরুদ্ধে যৌ’ন হেনস্থার অভিযোগ

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের এক অধ্যাপকের বিরুদ্ধে গবেষণারত এক ছাত্রীকে কোয়ার্টারে ডেকে যৌ’ন হেনস্থার অভিযোগ উঠল। যাদবপুর বিদ্যালয়ের ওই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধ’র্ষ’ণের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়। সেই অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে যে আপাতত এই অধ্যাপক বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে পারবেন না। যতদিন না পর্যন্ত তদন্ত শেষ হচ্ছে, ততদিন এই নিয়মই বলবৎ থাকবে। এও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে পঠনপাঠন সংক্রান্ত কোনও কাজে অভিযুক্ত এই শিক্ষক যুক্ত থাকতে পারবেন না।  

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের এই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ধ’র্ষ’ণের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করেছেন এক ছাত্রী। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে যাদবপুর থানার পুলিশ।

গবেষণারত ওই ছাত্রী ফেসবুকে লেখেন, “আমার গবেষণাপত্র জমা দিতে ইচ্ছা করেই দেরি করছিলেন আমার সুপারভাইজার। কয়েক সপ্তাহ আগে কারণটা জানতে পারি। উনি আমায় ওঁর অফিসে ডেকে পাঠান। ওঁর নজর ছিল আমার উপর”। অধ্যাপকের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ তুলেছেন ওই ছাত্রী। এই বিষয়ে অধ্যাপকের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি এখনও পর্যন্ত।

পুলিশে ওই ছাত্রী যে অভিযোগ দায়ের করেছেন, তা অনুযায়ী ওই ছাত্রীকে ওই অধ্যাপক গবেষণাপত্র নিয়ে আলোচনার জন্য নিজের কোয়ার্টারে ডাকেন। আর তাঁর উরু, গালে, পিঠে স্পর্শ করেন। এমনকি তাঁকে চু’ম্ব’নও করেন বলে অভিযোগ ছাত্রীর। এরপর তাঁকে ধ’র্ষ’ণের চেষ্টা করলে তিনি কোনওক্রমে সেখান থেকে পালিয়ে যান। এই ঘটনায় তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button