সব খবর সবার আগে।

বিজেপি নেতা রাকেশ সিং গোটা ঘটনার নেপথ্যে সিআইডি তদন্ত চাই, বিস্ফোরক দাবি পামেলা গোস্বামীর!

শুক্রবার বিজেপির যুব মোর্চা সাধারণ সম্পাদক পামেলা গোস্বামী কোকেনসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন পুলিশের হাতে। আজ কোর্ট লকআপে তিনি বিস্ফোরক অভিযোগ জানালেন। তুমি অভিযোগ জানিয়েছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয় ঘনিষ্ঠ রাকেশ সিং গোটা ঘটনার নেপথ্যে রয়েছেন। রাকেশ ফাঁসিয়েছেন পামেলাকে। তার এই বিস্ফোরক অভিযোগেই এখন সরগরম রাজ্য রাজনীতি।

দু’বছর আগে বিজেপিতে যোগদান মডেলিং এবং এয়ার হোস্টেসের চাকরি করে আসা পামেলা গোস্বামী। যোগদানের কিছুদিনের মধ্যেই তরতর করে তার উত্থান ঘটে। ২০২০ সালেই তিনি বিজেপি যুব মোর্চার সম্পাদক হন। বিজেপির হুগলি যুব মোর্চার পর্যবেক্ষকও তিনি। দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, জেপি নাড্ডা, তেজস্বী সূর্য সকলের সঙ্গেই অত্যন্ত সদ্ভাব বজায় রেখে চলেন পামেলা।তাই বিজেপির কয়েকজন মনে করছে পামেলার এই উত্থানকে ভালো চোখে দেখছে না দলের কিছু মানুষ।

আবার বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের দাবি পামেলাকে ইচ্ছা করে ফাঁসিয়েছে তৃণমূল শিবির। কিন্তু পামেলা বলছেন অন্য কথা। তিনি রাকেশ সিংয়ের নাম করেছেন। তিনি বলেছেন গোটা ঘটনায় সিআইডি তদন্ত চাই। রাকেশও দুই বছর আগেই বিজেপিতে যোগদান করেন।বন্দর এলাকায় তার যথেষ্ট নাম ডাক রয়েছে। রাজ্য বিজেপির বস্তি সরকার উন্নয়নের আহ্বায়ক এই নেতার প্রায়ই বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে থাকেন। এর আগে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলার ঘটনায় নাম উঠে এসেছিল রাকেশ সিং-এর। পুলিশের অভিযোগ ছিল, কনভয় থেকেই রাকেশ সিং তৃণমূল কর্মীদের অঙ্গভঙ্গি করে প্ররোচনা দেয়।

মুখ খুলেছেন রাকেশ সিং। তিনি অভিযোগ করেছেন পামেলাকে দিয়ে বলানো হচ্ছে এসব কথা। তৃণমূল কংগ্রেস কলকাতা পুলিশকে দিয়ে এই সব কাজ করাচ্ছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মদত রয়েছে গোটা ঘটনায়।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...