সব খবর সবার আগে।

স্নাতকোত্তরের সমস্ত ফি মকুব করল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, করোনা পরিস্থিতির জেরে বড়সড় সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের

রাজ্যের অন্যান্য বড় বড় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাছে এক উদাহরণ হয়ে দাঁড়াল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে স্নাতকোত্তরের সমস্ত ফি মকুব করা হল। আজ, শুক্রবার একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে।

এই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় যে মার্কশিট বা সেমেস্টার দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও ধরণের কোনও ফি দিতে হবে না। করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানানো হয় কর্তৃপক্ষের তরফে।

এই ফি মকুবের সিদ্ধান্তের ফলে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তরের প্রায় সাড়ে ১২ হাজার পড়ুয়া উপকৃত হবে। এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী জানান, “অতিমারিতে অনেক পরিবারের আয় কমেছে। অনেক ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে। সেকথা মাথায় রেখেই আমরা সমস্ত ফি মকুব করছি”।

বলে রাখি, গত বৃহস্পতিবার ফি মকুবের দাবীতে আন্দোলন করেন পড়ুয়ারা। এরপরই ফি মকুবের সিদ্ধান্তের জেরে বেশ খুশি পড়ুয়ারা। এবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়-সহ রাজ্যের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়েও ফি মকুবের দাবী উঠতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে।

করোনা পরিস্থিতির জেরে গত বছর মার্চ মাস থেকেই বন্ধ সমস্ত কলেজ- বিশ্ববিদ্যালয়। এদিকে রাজ্যের সমস্ত কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ধরলে, সব ছাত্রছাত্রীদের মিলিয়ে তাদের বাড়িতে প্রায় কোটি কোটি টাকার বই পড়ে রয়েছে।

নিয়ম অনুযায়ী, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বই গ্রন্থাগারে ফেরত না দিলে জরিমানা দিতে হয়। এই কারণে অতিরিক্ত জরিমানার ভয়ে পড়ুয়ারা গ্রন্থাগারমুখোই হচ্ছে না। এই কারণে ঋণের টাকা ফেরাতে ব্যাঙ্কের মতোই ছাড় দিয়েছে দেশের অন্যতম প্রাচীন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।

এই বিষয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “অতিমারি পরিস্থিতিতেও আমরা গ্রন্থাগার আংশিকভাবে খুলে রেখেছি। ছাত্রছাত্রীরা অনেকে যাঁরা বই ফেরত দিতে পারেননি আমরা তাঁদের লেট ফাইন না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি”।

এই সিদ্ধান্তে সাড়া মিলেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফেও। এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ১৬ই আগস্ট থেকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিনা জরিমানাতেই গ্রন্থাগারের বই ফেরত নিচ্ছে বলেও জানা গিয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...