কলকাতা

‘জেলে যেতে ভয় পাই না, কিন্তু ইডি সামাজিক সম্মান নিয়ে টানাটানি করে রাস্তায় নামায়’, অনুব্রতর গ্রেফতারির পর মুখ খুললেন ফিরহাদ

এর আগে তৃণমূলের (TMC) তরফে বারবার অভিযোগ করা হয়েছে যে নানান কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলি (CBI-ED) তৃণমূলের বিরুদ্ধে অতিসক্রিয়তা নিয়ে কাজ করছে। শাসকদলের অভিযোগ, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই এই কাজ করছে বিজেপি (BJP) । নানান দুর্নীতি নিয়ে নানান তৃণমূল নেতাদের (TMC leaders) বাড়িতে যেভাবে তল্লাশি, গ্রেফতারি চলছে, তাতে ইডি-সিবিআইয়ের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল।

এসএসসি দুর্নীতিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায় গ্রেফতার হওয়ার পর এবার গরু পাচার কাণ্ডে সিবিআই গ্রেফতার করেছে অনুব্রত মণ্ডলকে। এরপর ইডি-সিবিআইয়ের সক্রিয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরব হলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। তাঁর কথায়, “জেলে যেতে ভয় পাই না, কিন্তু ইডি সামাজিক সম্মান নিয়ে টানাটানি করে। রাস্তায় নামিয়ে আনছে”।

নারদা মামলায় তিনি নিজে বেশ কিছুদিন জেলবন্দি ছিলেন। পরে হাইকোর্টে জামিন পান তিনি। সেই সময় ফিরহাদ বারবার বলেছিলেন যে আইনের উপর আস্থা রয়েছে তাঁর। এবার অনুব্রত মণ্ডলের গ্রেফাতারির পর আজ, শনিবার ‘টক টু মেয়র’ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “যেভাবে সামাজিক সম্মান হরণ করা হচ্ছে, তাতে ক্ষতি হচ্ছে আমাদের। অনেকের এই ধরনের অসভ্যতামি দেখে ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে। আমার মত অনেকেরই অসীম ধৈর্য নেই। যাদের ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে, তাদের কাছে আমি আবেদন করব, এই ধরনের কথা থেকে বিরত থাকতে। সবার উপরে মানুষ সত্য, মানুষের উপরে কেউ নেই। মানুষ ঠিক করবে কে দোষ করেছে বা কে দোষী নয়”।

পার্থ, অনুব্রত গ্রেফতার হওয়ার পর খুশির হাওয়া লেগেছে বিরোধী শিবিরে। বাম-বিজেপি দুই দলই মেতেছে উৎসবে। অনুব্রতর গ্রেফতারির পর পথচারীদের গুড়-বাতাসা, নকুলদানা বিলিয়ে উৎসবে মাতেন বাম-বিজেপি নেতা-কর্মীরা। এই আচরণকে ‘অসভ্যতামি’ আখ্যা দিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। এরই সঙ্গে দলীয় কর্মীদের আবেদন জানিয়েছেন যাতে কেউ ধৈর্য না হারান।

এর আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বারবার বলেছেন যে রাজনৈতিকভাবেই কেন্দ্রকে জবাব দিতে হবে, হিংসা দিয়ে নয়। এদিন ফিরহাদও সেই একই কথাই বলেন। দলের নেতামন্ত্রীদের বিরুদ্ধে ইডি বা সিবিআই পদক্ষেপ করলে কেউ যেন কোনও হিংসার পথ বেছে না নেয়, সেই বার্তাই এদিন দেন কলকাতা পুরসভার মেয়র।

Related Articles

Back to top button