সব খবর সবার আগে।

পুজোতে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় দেখে গভীর রাতে ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিল রেল

করোনার জন্য পুজোতে থেমে নেই ঠাকুর দেখা। পঞ্চমী থেকে রাস্তায় নেমে গিয়েছে মানুষের ঢল। এমনকি দর্শনার্থীদের ভিড়ের জন্য গভীর রাতে ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। ষষ্ঠীর দিন দুপুর থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে ট্রেনে ভিড়। গ্রাম-মফঃস্বল থেকে শহরে ঠাকুর দর্শনে আসছেন দর্শনার্থীরা। গতবছর করোনার ধাক্কায় বিপর্যস্ত ছিল গোটা দেশ। এখনও পর্যন্ত সেভাবে স্বাভাবিক হয়নি জনজীবন। এমনকি পুরোপুরিভাবে চলাচল করা শুরু করেনি লোকাল ট্রেন। কিন্তু পুজোয় জনজোয়ার দেখে শেষমেষ রাতে ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিল রেল।

শিয়ালদহ ডিভিশন পুরোপুরিভাবে সিদ্ধান্ত না নিলেও প্রয়োজন হলেই চলবে রাতে ট্রেন। এজন্য পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে ডিভিশন। পাশাপাশি হাওড়ার সিনিয়র ডিভিশনের অপারেশন ম্যানেজার রোশন কুমার জানিয়েছেন, ”কোভিড শুরুর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে পুজোয় গভীর রাতে যত ট্রেন চলেছিল এবার তার থেকে বেশি ট্রেন চালানো হবে। ওই বছর আটটি ট্রেন গভীর রাতে চলেছিল বিভিন্ন শাখায়। এবার বারোটি ট্রেন চলবে। ট্রেনের সংখ্যা এখন কম তাই ট্রেনের ‘ব্যালান্সিং’ রক্ষায় বাড়তি চারটি ট্রেন চলবে এবার সপ্তমী থেকে নবমী পর্যন্ত।”

অন্যদিকে শিয়ালদহের ডিআরএম এস পি সিং বলেছেন, ”এখন এ নিয়ে সিদ্ধান্ত না নেওয়া হলেও প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হয়েছে। যাতে রাতেই প্রয়োজনে শিয়ালদহ থেকে ট্রেন ছাড়তে পারে।” জানা গিয়েছে হাওড়া থেকে রাত ১২.৪৫ মিনিটে বর্ধমান শাখার জন্য ছাড়বে একটি ট্রেন। সেটি বর্ধমান পৌঁছাবে ০৩.১০ মিনিটে। অন্যদিকে বর্ধমান থেকে হাওড়ার উদ্দেশ্যে ট্রেন ছাড়বে রাত ০৯.৩০ মিনিটে। যা হাওড়া পৌঁছাবে ১২.০৫-এ। পাশাপাশি হাওড়া থেকে বর্ধমান কর্ড লোকাল ছাড়বে ০১.১৫ মিনিটে এবং বর্ধমান থেকে হাওড়ার উদ্দেশ্যে একটি ট্রেন ছাড়বে রাত ১০.৩০-এ।

এদিকে রাত ১টা, ০১.৫০ ও ০২.৫০ মিনিটে হাওড়া থেকে তিনটি ব্যান্ডেল লোকাল ছাড়বে। আবার ব্যান্ডেল থেকে হাওড়ার উদ্দেশ্যে ছাড়বে তিনটি ট্রেন। সেগুলির সময় হল রাত ১১.৩০, ১২.৩০ ও ০১.৩০টা। তারকেশ্বর থেকে হাওড়ার জন্য ছাড়বে আরও একটি ট্রেন। তার সময় হল রাত ১১.১০ মিনিটে।

এদিকে পুজোর ভিড় নিয়ন্ত্রণে ট্রেন চালুর পাশাপাশি মহিলা ও শিশুদের সুরক্ষার কথা ভেবে আরপিএফের ‘সহেলি’ বাহিনীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। দুষ্কৃতীদের ধরতে আরপিএফের অপরাধ দমন শাখা তৎপর রয়েছে সব সময়। পঞ্চমীতে হাওড়া স্টেশন থেকে ধরা পড়েছে ৪ দুষ্কৃতী। মোবাইল চুরির অপরাধে ধরা হয়েছে তাদের। এমনকি পার্কিং এলাকায় রয়েছে নজরদারি। পাশাপাশি শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার স্টেশনে প্রবেশের মুখে যাত্রীদের চলাফেরার অসুবিধা হচ্ছে বেআইনি হকার ও পনির বাজারের জন্য। এই সমস্ত দিকেই নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...