সব খবর সবার আগে।

কলকাতার ৪৬টি বাজার খুলছে সোমবার, মানতে হবে অনেক শর্ত

ধীরে ধীরে লকডাউন উঠিয়ে দেওয়ার পথে হাঁটছে রাজ্য। সোমবার থেকে খুলে যাচ্ছে সমস্ত ধর্মস্থান। ৮ই জুন থেকে খুলছে সরকারি ও বেসরকারি কর্মস্থান। এবার বাজার খোলার উদ্যোগ নিল রাজ্য। সোমবার থেকে শর্তসাপেক্ষে আবার চালু হচ্ছে নিউ মার্কেট, এন্টালি বাজার, গড়িয়াহাট বাজার-সহ পুরসভার অধীনস্থ ৪৬টি বাজার।

পুরসভার নির্দেশে বাজার খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫.৩০টা পর্যন্ত। তার পরে বাজারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কলকাতা পুরসভা।

লকডাউনে শুধুমাত্র ফল-সবজি সহ অত্যাবশ্যক সামগ্রী ছাড়া অন্যান্য পণ্য বিক্রি বন্ধ রাখা হয় সেফটি মেজার হিসাবে। জানা গিয়েছে, পুলিশ ও স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে আলোচনার পরে ক্লিন জোন-এ থাকা পুরসভার বাজারগুলি খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নবান্ন।

সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে কোনও বাজার এলাকার কাছাকাছি করোনা রোগীর সন্ধান মিললে তা বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে পুরসভা জানিয়েছে। সংক্রমিত এলাকা থেকে দূরে রাখা হচ্ছে বাফার জোনে থাকা বাজারগুলিও।

গত ১৮ মে পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞপ্তি মারফৎ কলকাতা শহরকে করোনা সংক্রমণের এ, বি এবং সি জোনে ভাগ করা হয়। বলা হয়, এর মধ্যে এ জোনে কোনও দোকান খোলা হবে না। বি জোনে বাজারের মধ্যে থাকা অত্যাবশকীয় নয়, এমন দোকানের ২৫% শতাংশ খোলা হবে। সি বা ক্লিন জোনে সব দোকান খোলা হবে।
এছাড়াও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ছাড়া অন্যান্য পণ্যের বিক্রি সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৭টার মধ্যে করা যাবে না। পাশাপাশি, বিকেল ৫.৩০ তে বাজার বন্ধ হলে বাজার চত্বর ছেড়ে যেতে হবে সব দোকানিকে। জমায়েত করা যাবে না।

You might also like
Leave a Comment