কলকাতা

‘মাস্ক কোথায়’? জিজ্ঞাসা করতেই রেগে লাল, DC পোর্টের সামনেই পুলিশকর্মীকে মারধর যুবকের

করোনা  নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির তাগিদে রাস্তায় নেমেছে কলকাতা পুলিশ। অভিযোগ, খিদিরপুরে অভিযান চালানোর সময় মারধর করা হল এক পুলিশকর্মীকে। মাস্ক পরতে বলায় পুলিশকর্মীর গায়ে হাত তোলে এক যুবক। পরে সেই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। কিন্তু কিছু মানুষের এখনও হুঁশ ফেরে নি। এই পরিস্থিতিতে মানুষকে সচেতন করতে খিদিরপুরে অভিযান চালায় কলকাতা পুলিশ। বাজার এলাকার ডিসি পোর্ট এবং ওয়াটগঞ্জ থানার ওসির নেতৃত্বে অভিযান চালাল পুলিস বাহিনী। যাঁদের মুখে মাস্ক নেই তাঁদের মাস্ক পরতে নির্দেশ দেওয়া হয়। কেউ নির্দেশ অমান্য করলে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সেই সময়ই এক যুবককে মাস্ক পরতে বললে প্রথমেই অস্বীকার করে সে। এরপর মাস্ক কোথায়, এই প্রশ্ন করতেই রীতিমতো ক্ষিপ্ত হয়ে হয়ে যুবক। অভিযোগ, পুলিশ তখন তাঁকে মাস্ক দিতে গেলেও সে নেয় না। উল্টে অন ডিউটি এক পুলিশকর্মীকে মারধর করে ওই যুবক। ডিসি পোর্টের সামনেই ঘটে গোটা ঘটনাটি। এরপর গ্রেফতার করা হয় ওই যুবককে।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে ডিসি পোর্ট জানান, খিদিরপুরের বাজার এলাকায় অনেকেই করোনা বিধিনিষেধ মেনে চলছেন না। এই কারণেই পুলিশের তরফে সচেতনতা প্রচার চলছে। সর্বক্ষণের জন্য নজরদারিও চলছে। কেউ মাস্ক না পরলে পুলিশের তরফে তাকে মাস্ক দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এরপরও না মানলে, গ্রেফতার করা হচ্ছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে কলকাতা পুলিশকে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যাতে করোনা বিধিনিষেধ সঠিকভাবে পালন করানো হয়। এই কারণে শহর-সহ রাজ্যের নানান জায়গায় করোনা বিধিনিষেধ বলবৎ করতে উঠেপড়ে লেগেছে পুলিশ। এতেও কাজ না হলে আরও কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছ।

Related Articles

Back to top button